২০ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বৃষ্টির মধ্যে দ্বিগুণ ভাড়ায় ছাদে ঘরমুখো মানুষ

বৃষ্টির মধ্যে দ্বিগুণ ভাড়ায় ছাদে ঘরমুখো মানুষ

অনলাইন রিপোর্টার॥ সকালের বৃষ্টির কারণে এ জোয়ারকে ম্লান করে দিয়েছে। তবুও প্রিয়জনের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করার জন্য বাসের ছাদে, বাম্পারে, গেটে ঝুলে গরুর ট্রাকে উঠে যে যেভাবে পারছেন, ঠিক সে সেভাবে গ্রামের বাড়ি ছুটছেন। সোমবার থেকে অধিকাংশ বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ছুটি ঘোষণা হওয়ায় ভোর থেকে বাস গাবতলী টার্মিনালে ঘরমুখো মানুষের ঢল নামে। ফলে কোলাহলপূর্ণ রাজধানী অনেকটাই ফাঁকা হয়ে যাচ্ছে।

আজ মঙ্গলবার গাবতলী বাস টার্মিনালে দেখা যায়, যাত্রীদের চাপ ছিল অতিমাত্রায়। বাসের ভিতরে জায়গা না থাকায় বাসের ছাদেও যাত্রী উঠতে দেখা গেছে। কিছুসংখ্যক বাস সিট পূর্ণ করে ঢাকা ছেড়েছে। ঢাকার আশপাশের জেলার বাসগুলোতেও ছিল যাত্রীর চাপ। অধিকাংশ বাসে ভাড়াও নেয়া হচ্ছে দ্বিগুণ। সকাল থেকে বৃষ্টির কারণে যাত্রীদের পড়তে হচ্ছে বাড়তি ভোগান্তিতে। এ ছাড়া সাভারের আশুলিয়া, চন্দ্রা মহাসড়কে ধীরগতিতে গাড়ি চলার কারণে বিভিন্ন স্থানে যানজটের সৃষ্টি হয়। তবে দীর্ঘ ছুটি নিয়ে বাড়ির উদ্দেশে রওয়ানা হতে পেরে অনেকেই খুশি।

পরিবহন সংশ্লিষ্টরা জানান, গাবতলী টার্মিনাল থেকে ছেড়ে যাওয়া বাসের টিকিট আগেই বিক্রি করা হয়। অনেকে টিকিট না পেয়ে বিভিন্ন লোকাল পরিবহনে গন্তব্যে যাচ্ছেন। তবে গত দুইদিনের তুলনায় যাত্রীদের চাপ আজ অনেক বেশি ছিল। আর এই সুযোগে পরিবহন মালিকরা কোনো নিয়মনীতি না মেনেই অতিরিক্ত ভাড়া ও ছাদে ওঠাচ্ছেন যাত্রীদের। আবার পরিবহন সংকট দেখিয়েও যাত্রীদের মাঝে আতংক ছড়িয়ে দেয়। বলা হয় গাড়ি নেই। তাই একরকম বাধ্য হয়েই বাস ও গরুর গাড়িতে উঠে পড়ছেন। এ ভাবেই ঈদ আনন্দ উৎসবে প্রিয়জনদের সঙ্গে যোগ দিতে বাড়ি যাচ্ছেন রাজধানীবাসীর অনেকেই।

এই মাত্রা পাওয়া