১০ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নীলফামারীতে আট হাজার শিক্ষক কর্মচারী ঈদের বেতন-বোনাস হতে বঞ্চিত

স্টাফ রিপোর্টার, নীলফামারী ॥ নীলফামারীর জেলার ছয় উপজেলার এমপিও ভুক্ত প্রায় ৩৯৮ টি স্কুল কলেজ, মাদ্রাসার ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রায় আট হাজার ৮০ জন শিক্ষক ও কর্মচারীরা এবার জুন মাসের বেতন ও ঈদের বোনাস ব্যাংক থেকে উত্তোলন করতে পারেনি। সরকারের পক্ষে ব্যাংকে তাদের বেতন বোনাসের অর্থ ছাড় করার ডিও লেটার প্রেরন করলেও সে পত্র ব্যাংক কর্তৃপক্ষের হাতে না পৌছার কারনে এ পরিস্থিতি হয়। ফলে ঈদের আগে জুন মাসের বেতন ও বোনাস না পাওয়ায় শিক্ষক ও কর্মচারীরা ঈদের আনন্দ হতে বঞ্চিত হচ্ছে বলে জানা গেছে।

নীলফামারী জেলা শিক্ষক সমিতির আহবায়ক মশিউর রহমান ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ সারোয়ার মানিক আজ বুধবার সকালে অভিযোগ করে জানান এ জেলার ছয় উপজেলার এমপিও ভুক্ত ১৫টি ডিগ্রি কলেজ, ১৫টি উচ্চ মাধ্যমিক কলেজ, ২৬টি কারিগরি কলেজ, যৌথভাবে স্কুল এন্ড কলেজ ২টি, ননএমপিও ভুক্ত মাধ্যমিক স্কুল ১৯৩টি,নি¤œ মাধ্যমিক ৯৩টি ও মাদ্রাসা ৫৪টি সহ মোট ৩৯৮টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক ও কর্মচারী মিলে কর্মরত প্রায় আট হাজার ৮০ জন।

তিনি জানান এবার সরকারি ঘোষনা অনুযায়ী নতুন বেতন স্কেল ও বোনাস দেয়ার ঘোষনা প্রদান করে সে মাফিক সরকারিভাবে বেতন বোনাসের ডিও লেটার ব্যাংকে পাঠিয়ে দেয় শিক্ষা মন্ত্রনালয়। কিন্তু নীলফামারীর সোনালী ব্যাংক কর্তৃপক্ষ এ সংক্রান্ত কোন নির্দেশনার পত্র হাতে না পাওয়ায় কথা জানিয়ে বেতন বোনাস প্রদান থেকে বিরত থাকে।

নীলফামারী জেলা শিক্ষক সমিতির আহবায়ক সারোয়ার মানিক আরও জানান ঈদের আগে বেতন বোনাস না পাওয়ার কারনে এ জেলার এমপিও ভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর শিক্ষক ও কর্মচারীরা ঈদ উৎসব থেকে বঞ্চিত হলো। এ ব্যাপারে নীলফামারী সোনালী ব্যাংক শাখার ব্যবস্থাপক সুলতান আহমেদ জানান, এমপিও ভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বোনাসের স্মারক ব্যাংকে না পৌঁছানোর কারনে শিক্ষকদের বিল জমা নেওয়া যায়নি।