১২ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

গণতন্ত্রের চর্চা থাকলে অশুভ শক্তির উত্থান হতো না ॥ রিজভী

গণতন্ত্রের চর্চা থাকলে অশুভ শক্তির উত্থান হতো না ॥ রিজভী

অনলাইন রিপোর্টার॥ দেশে গণতন্ত্রের চর্চা থাকলে অশুভ শক্তির উত্থান হতো না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। আজ বুধবার বেলা সাড়ে ১২ টার দিকে নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন। রিজভী বলেন, তিনি বলেন, শর্তের কথা বলে কালক্ষেপণ করে জাতীয় ঐক্যকে বাধাগ্রস্ত করলে অশুভ শক্তিরই বাড়বাড়ন্ত হবে। সম্মিলিত প্রচেষ্টার মধ্য দিয়ে জাতীয় নিরাপত্তাকে সুরক্ষা দেওয়া যে এ মূহুর্তে অত্যন্ত জরুরী। রিজভী সম্প্রতি ঘটে যাওয়া সকল সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের উগ্রবাদী সন্ত্রাসীদের চিহ্নিত করে তাদের নির্মূল করতে কোনো পর্দা ঝুলিয়ে রাখলে সংকটের মর্মমূলে পৌঁছানো যাবে না। তাই সন্ত্রাসীদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় এনে উপযুক্ত বিচার করতে হবে।

রিজভী বলেন, এরকম সহিংস জীবনসংহারী গোষ্ঠীর অপতৎপরতা নির্মূল করার জন্য ঐক্যবদ্ধ প্রয়াসের কথা বারবার ঘোষণা করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। বর্তমানে সর্বমহলে তার বক্তব্য অভিনন্দিত হয়েছে। সুতরাং এই মূহুর্তে দোষারোপ ও বিভাজনের পুরনো পথে হাঁটলে দেশের সংকট আরো ঘনীভূত হবে। সম্প্রতি ঘটে যাওয়া সন্ত্রাসী ঘটনায় উগ্রবাদী সন্ত্রাসীদের চিহ্নিত করে তাদের নির্মূল করতে কোনো পর্দা ঝুলিয়ে রাখলে সংকটের মর্মমূলে পৌঁছানো যাবে না।

তিনি বলেন, বৈশ্বিক সন্ত্রাসের নেটওয়ার্কের আওতায় বাংলাদেশকে অন্তর্ভূক্ত করার আলামত ফুটে উঠলো। এটি বাংলাদেশের ইতিহাসে একটি বিরল দ‍ুর্ঘটনা। এর ব্যাপক প্রভাব পড়বে গোটা জাতির ওপর। বিশ্বসমাজে আমাদের রাজনীতি, সমাজ, সংস্কৃতি, অর্থনীতি সর্বত্রই নেতিবাচক পরিচিতি লাভ করতে থাকবে। বিশেষ করে আমাদের অর্থনীতি গভীর খাদে পতিত হবে। বিনিয়োগ, ব্যবসা-বাণিজ্য, উন্নয়ন, কর্মসংস্থানসহ সকল অর্থনৈতিক কার্যক্রম মুখ থুবড়ে পড়ায় আশঙ্কা রয়েছে।

তিনি বলেন, ঈদের প্রাক্কালে আমাদের প্রত্যেকেরই প্রত্যাশা ছিল-একটি শান্তিপূর্ণ পরিবেশে উৎসবমূখর ঈদ উদযাপন। সারা রমজান মাসটি কেটেছে ভয়ে, আশংকায় আর গা ছমছম করা সাবধানে। কারণ গোটা মাসই রক্তঝরা সংঘাত-সংঘর্ষে কেটেছে। বছরব্যাপী বিভিন্ন সম্প্রদায়ের ধর্মগুরু, ভিন্ন মতাবলম্বী ব্লগার, বিদেশি নাগরিকসহ নানা মতের মানুষকে হত্যার ধারাবাহিকতায় গুলশানের হলি আর্টিজান রেষ্টুরেন্টে সন্ত্রাসী হামলায় দেশে দেখা গেলো উগ্রবাদের এক নতুন বিভৎস রূপ। সবশেষে তিনি দেশবাসীকে তিনি ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানান।