১৬ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বাউফলে ধর্ষনের ঘটনা ৫০ হাজার টাকায় রফাদফা

নিজস্ব সংবাদদাতা, বাউফল ॥ বাউফলের তেঁতুলিয়া নদীর মধ্যবর্তী (মূল ভূখন্ড থেকে বিচ্ছিন্ন) চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়নে এক কিশোরীকে (১৫) ধষর্নের পর এক ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে তা ৫০ হাজার টাকায় রফাদফা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল মঙ্গলবার রাতে এ ঘটনা ঘটেছে। জানা গেছে, চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়নের চর মিয়াজান এলাকার বাসিন্দা মঞ্জু হাওলাদারের বাড়িতে একই উপজেলার দাশপাড়া ইউপির রহিম (৫০) নামের এক ব্যাক্তি মঙ্গলবার বেড়াতে যায়। অভিযোগ উঠেছে, ঘটনার দিন রাতে রহিম ওই ঘরের কিশোরী মেয়েকে জোড় করে ধর্ষন করে। রাতেই এঘটনা স্থানীয় ইউপি সদস্য বশার মৃধাকে জানালে তার নেতৃত্বে হানিফ চৌকিদার, হাবিব হাওলাদার ও বশার বয়াতি ঘটনাস্থলে গিয়ে রহিমকে আটক করে তার মাথা ন্যারা করে দেয়। রাত ৪ টার দিকে ইউপি সদস্য বশার মৃধা ও তার সাঙ্গপাঙ্গরা ওই ঘটনা স্থানীয় চেয়ারম্যান কিংবা পুলিশকে না জানিয়ে রহিমের থেকে ৫০ হাজার টাকা নিয়ে মুচলেকা রেখে তাকে ছেড়ে দেয়। এরপর থেকে রহিম গা ঢাকা দিয়েছে। অনেক চেষ্টা করেও তাকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। ইউপি সদস্য বশার মৃধা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করলেও টাকার বিনিময়ে ছেড়ে দেয়ার কথা অস্বীকার করেন। ইউপি চেয়ারম্যান এনামুল হক আলকাচ মোল্লা জানান, ওই ঘটনা সম্পর্কে তাকে কিছুই জানানো হয়নি। বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অযম খান ফারুকী এ বিষয়ে কিছু জানেন না বলে জানিয়েছেন।