২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঈদ ঘিরে উত্তরাঞ্চলের বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে উপচেপড়া ভিড়

 ঈদ ঘিরে উত্তরাঞ্চলের বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে উপচেপড়া ভিড়

স্টাফ রিপোর্টার, নীলফামারী ॥ ঈদ মানে খুশি, ঈদ মানে আনন্দ। সারা বছরের ব্যস্ততায় দম ফেলানোর সময় পায় না অনেকেই। তাই ঈদের ছুটিতে শিশুদের সঙ্গে অভিভাবকরাও যেন ফিরে যান তাদের ফেলে আসা সোনালি দিন।

ঈদের ছুটিতে মানুষ ভিড় করেছে উত্তরাঞ্চলের রংপুর বিভাগের বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে। পরিবার পরিজন নিয়ে ঈদ আনন্দ উপভোগ করতে মানুষ দর্শনীয় স্থানগুলো ঘুরে দেখেছে। ঈদের পরের দিন আজ শুক্রবার সকাল থেকে এ অঞ্চলের বিনোদন কেন্দ্র গুলো হাজারো মানুষের পদচারনায় মুখোরিত হয়ে উঠেছে।

লোকজনের সমাগমে আনন্দের জোয়ার বইছে। রংপুরের ভিন্ন জগত, আনন্দনগর, তাজহাট জমিদারবাড়ি, চিড়িয়াখানা, সুরভি উদ্যান, চিকলি পার্ক, ঘাঘট নদীর প্রয়াস সেনা পার্ক, পীরগঞ্জের আনন্দনগরসহ বিভিন্ন বিনোদন কেন্দ্রগুলোও সেজেছে নবরূপে। সব বয়সী মানুষের ভিড় জমলেও সিংহভাগ দখল করে রাখে শিশুরা। এ সব এলাকায় দেখা গেছে একই চিত্র। মা-বাবার হাত ধরে, কেউবা ভাই-বোন, আতœীয় স্বজনের হাত ধরে ঘুরছে। শুধু শিশুরাই নয়,শিশুদের সঙ্গে অভিভাবকরাও কিছুক্ষণের জন্য হারিয়ে যাচ্ছেন আনন্দের রাজ্যে।

এদিকে নীলফামারীর ডালিয়া অবস্থিত দেশের সর্ববৃহৎ সেচ প্রকল্প তিস্তা ব্যারাজ, নীলফামারীর নীলসাগর এলাকায় দেখা যায় একই চিত্র।

তবে তিস্তা নদী অববাহিকার তিস্তা ব্যারাজে পা ফেলার স্থান নেই। দুর দুরান্ত এলাকা থেকে গাড়ীতে করে এলাকা দেখতে এসেছে মানুষজন।

অপর দিকে দিনাজপুরের রামসাগর, স্বপ্নপুরি বিনোদন এলাকায় মানষের ভিড়ে মুখোরিত।

শহরের শিশু ও তরুণ-তরুণীদের পাশাপাশি গ্রামাঞ্চল এবং বাইরে থেকে ঈদের ছুটিতে বেড়াতে আসা শিশুদের কারণে ভিড় আরো বেড়েছে। নীলসাগরের বিশাল দীঘির চারদিকে রয়েছে নানা প্রজাতির গাছ- গাছালির সমাহার। পানি আর সবুজ মিলে সে এক অপরূপ দৃশ্য। পঞ্চগড়ের শালবাহান নহ বিভিন্ন চা বাগান এলাকা, বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরেও মানুষের উপচে পড়া ভিড়ের খবর এসেছে।

লালমনিরহাট জেলার পাটগ্রাম উপজেলায় রয়েছে তিনবিঘা করিডোর ও দহগ্রাম-আঙ্গরপোতা । এসব স্থানেও দর্শনার্থীরা ভিড় করছে।

পরিবার পরিজন নিয়ে ছোট-বড় বাস, মাইক্রোবাস বা মোটরসাইকেলে হাজার হাজার মানুষ আসছেন এসব এলাকায়। সঙ্গে এনেছেন পরিবার-বন্ধু-স্বজন বা শুভাকাক্সক্ষীদের। অনেকে আবার এখানে এসে মেতে উঠেছেন পিকনিকে।

ঢাকা থেকে বেড়াতে আসা সাইফুল ইসলাম দ¤পতি বলেন, ঈদ উপলক্ষে রংপুরে আতœীয় বাড়িতে বেড়াতে এসে আজ ঈদের পরদিন বিভিন্ন স্থান ঘুরে বেড়াচ্ছি। খুব ভাল লাগছে।

এদিকে ঈদে পর্যটন কেন্দ্রগুলোর কোথাও যাতে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেজন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা সর্তক অবস্থায় রয়েছেন।#

নির্বাচিত সংবাদ