২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নতুন হিরো গ্রিজমানের সৌরভে বুঁদ ফ্রান্স

 নতুন হিরো গ্রিজমানের সৌরভে বুঁদ ফ্রান্স

অনলাইন ডেস্ক॥ কিংবদন্তি মিশেল প্লাতিনির সাথে তুলনীয় হতে আপত্তি তার। কিন্তু অ্যান্তোইন গ্রিজমান এবারের ইউরো থেকে কিংবদন্তি হয়ে উঠছেন। সেমি-ফাইনালে জোড়া গোল করে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানিকে হারালেন। ফ্রান্সকে ফাইনালে নিয়ে গিয়ে এখন শিরোপা উল্লাসে মাতার অপেক্ষা। নতুন হিরোকে খুঁজে পেয়ে ফরাসিরা বুঁদ হয়ে আছে তার সৌরভে।

বিতর্কিত কারণে স্ট্রাইকার করিম বেনজিমা নেই ঘরের আসরে। কিন্তু গ্রিজমান ছাপিয়ে যাচ্ছেন সবকিছু। ছোটোখাটো গড়নের এই স্ট্রাইকার ৬ গোল করে ফেলেছেন নিজের প্রথম ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে। এবারের আসরের সর্বোচ্চ গোলদাতা তিনি। ১৯৮৪ ইউরো ফ্রান্সকে জেতানোর পথে প্লাতিনি করেছিলেন ৯ গোল। তার সাথেই এখন উচ্চারিত হচ্ছে গ্রিজমানের নাম। বৃহস্পতিবার রাতে জার্মানিকে ২-০ তে হারানোর ম্যাচে দুটি গোলই গ্রিজমানের।

২৫ বছরের আতলেকিতো মাদ্রিদ স্ট্রাইকারের প্রশংসায় পঞ্চমুখ সবাই। কোচ দিদিয়ের দেশমের ভাষায়, "ও গ্রেট খেলোয়াড়। আজ রাতে দেখিয়েছে সে কতটা অসাধারণ খেলোয়াড়। এই ইউরোতে আমাদের ভাগ্য গড়ে দেওয়া খেলোয়াড় ও। নিজে গোল করতে পারে। করাতেও পারে।"

১৯৫৮ বিশ্বকাপের পর জার্মানিকে কোনো বড় আসরে হারাতে পারেনি ফ্রান্স। মার্শেইয়ে ৬৫ হাজার দর্শকের সামনে প্রবল চাপের মুখে গ্রিজমান একাই তাই করে ফেললেন। কুফা কাটল ফ্রান্সের। বেনজিমা উল্লাসে বার্তা পাঠান, "কাম অন। আর একটা ম্যাচ বাকি!!!" রবিবারের ফাইনালে গ্রিজমানদের প্রতিপক্ষ ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর পর্তুগাল।

এক ইউরো থেকে ফরাসিদের চোখের মণি হয়ে ওঠা গ্রিজমান তার ছোটোখাটো আকৃতির কারণে দেশের বড় ক্লাবে সুযোগ পাননি। স্পেনের আতলেতিকো মাদ্রিদে খেলেন। এবং শেষ মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে পেনাল্টি মিস করেছিলেন। সেই সুযোগ নিয়ে শিরোপাটা জিতে নেয় রিয়াল মাদ্রিদ। বাস্তিয়ান শোয়াইনস্টাইগারের হ্যান্ডবলে পাওয়া পেনাল্টি শট নিয়ে এখন দারুণ স্বস্তিতে গ্রিজমান। বলেছেন, "গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে আবার পেনাল্টি নিতে চেয়েছিলাম। খুব ভালো লাগছে তা পেয়েছি, গোল করেছি।" রিয়াল মাদ্রিদের রোনালদোর বিরুদ্ধে একটি প্রতিশোধের সুযোগ গ্রিজমানের সামনে।

৭২ মিনিটে বিশ্বের অন্যতম সেরা গোলকিপার ম্যানুয়েল ন্যুয়ারের পায়ের ফাঁক দিয়ে ম্যাচের দ্বিতীয় গোলটি করেছেন গ্রিজমান। কঠিন কাজটির ব্যাপারে বলেছেন, "আমি শুধু গোলকিপারের একটা ভুলের অপেক্ষায় ছিলাম।"

সতীর্থ স্ট্রাইকার অলিভার গিরুদের চোখে গ্রিজমান কেমন? "দায়িত্বটা দারুণভাবে নেয় ও। পেনাল্টি নিয়ে জালে জড়াল।" গিরুদের ভাষায়, "পেনাল্টি বক্সের মধ্যে সে খুনে। দ্বিতীয় গোলটিও পেয়ে গেছে। সে আমাদের মিস্টার লিটল এক্সট্রা।" গেল স্প্যানিশ লিগে ৩২ গোল করে আসা গ্রিজমানের সামনে ফাইনালে আরো দারুণ কিছু করে ইতিহাসে অমর হয়ে যাওয়ার সুযোগ।