১৬ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

তাইওয়ানে আঘাত হেনেছে ঘূর্ণিঝড় নেপারতাক, নিহত ১

তাইওয়ানে আঘাত হেনেছে ঘূর্ণিঝড় নেপারতাক, নিহত ১

অনলাইন ডেস্ক॥ তাইওয়ানের পূর্বাঞ্চলীয় উপকূলে শুক্রবার সকালে আঘাত হেনেছে ঘূর্ণিঝড় নেপারতাক। ঝড়ে এখন পর্যন্ত একজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। আহত হয়েছেন আরো ৬৬ জন। বহু স্থানে বিদ্যুৎ বিপর্যয় দেখা দিয়েছে। ঘূর্ণিঝড়ের কারণে বাতিল করা হয়েছে ৫ শতাধিক ফ্লাইট।

তাইওয়ানে চলতি মৌসুমের প্রথম ঘূর্ণিঝড়টি আঘাত হেনেছে। টেলিভিশনে প্রচারিত ফুটেছে দেখা যায়, প্রবল বেগে ঝড়োহাওয়া বইছে। ঝড়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে ঝড়ছে বৃষ্টি। এটি আঘাত হানার আগেই সাড়ে ১৫ হাজার মানুষকে ঘরবাড়ি থেকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেয়া হয়েছিল। এ কারণে হতাহতের সংখ্যা এত কম হয়েছে। এ পর্যন্ত ঝড়ে একজন নিহত এবং আরো ৬৬ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। তবে তারা কীভাবে ও কোথায় হতাহত হয়েছেন তা জানা জায়নি। ঘর্ণিঝড়ের আঘাতে বর্তমানে বিদ্যুৎবিহীন অবস্থায় রয়েছে দেশটির ১ লাখ ৮৭ হাজার ৮৩০টি বাড়ির লোকজন।

ঘূর্ণিঝড় নেপারতাকের কারণে ভেঙে পড়েছে দেশটির যোগাযোগ ব্যবস্থাও। সবমিলিয়ে ৫৫৪টি ফ্লাইট বাতিল করা হয়ে। এদের মধ্যে ৩ শতাধিক আন্তর্জাতিক এবং ২৫৪টি আভ্যন্তরীণ রুটের বিমান। শুক্রবার সকাল থেকেই দেশের বুলেট সার্ভিস ট্রেন চলাচলও বন্ধ রয়েছে।

একজন প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে রয়টার্স জানিয়েছে, প্রচণ্ড গতিতে বাতাশ প্রবাহিত হচ্ছে। অনেক বাড়ির চাল উড়ে গেছে এবং প্রচুর গাছপালা ভেঙে পড়েছে।

তবে স্থানীয় আবহাওয়া দপ্তর বলছে, তাইওয়ানে আঘাত হানার পর এই সুপার ঘূর্ণিঝড়টি দুর্বল হয়ে পড়েছে। আরো পরে এটি সাধারণ গ্রীষ্মমন্ডলীয় ঝড়ে পরিণত হবে এবং প্রতিবেশী দেশ চীনে আঘাত হানবে। ধারণা করা হচ্ছে, শনিবার সকাল নাগাদ এটি চীনের দক্ষিণ পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ ফুজিয়ানে আঘাত হানতে পারে।

এদিকে আগাম সতর্কতা হিসেবে ফুজিয়ানের উপকূলীয় এলাকাগুলোর মৎস্য খামার থেকে ইতিমধ্যে ৪ হাজারের বেশি লোকজনকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। সাগরে মাছ ধরার নৌকাগুলোকে বন্দরে ফিরে আসতে বলা হয়েছে। এছাড়া এই ঝড়ের প্রভাবে চীনের মধ্য ও পূর্বাঞ্চলীয় এলাকাগুলোতে বন্যা হতে পারে বলেও আবহাওয়া দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে।