২১ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ইংল্যান্ডের পর অস্ট্রেলিয়ার আসাও অনিশ্চিত!

  • বাংলাদেশ সফর

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ গুলশানে সন্ত্রাসী হামলার পর বাংলাদেশ সফর নিয়ে ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড ভাবতে শুরু করেছে। অক্টোবরে ইংল্যান্ড জাতীয় ক্রিকেট দলের বাংলাদেশ সফরে আসা অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। এবার অস্ট্রেলিয়া জাতীয় দলের বাংলাদেশ সফরে আসাও অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়ে গেছে! আগামী বছর জুলাই কিংবা সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশে সফর করতে আসার কথা অস্ট্রেলিয়ার। কিন্তু নিরাপত্তার বিষয়টি সামনে রেখে এ সফরও স্থগিত করে দিতে পারে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ড (সিএ)। একবার নয়, দুইবার বাংলাদেশে খেলতে দল পাঠায়নি অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ড। একবার ২০১৫ সালের অক্টোবরে। নিরাপত্তা ঝুঁকি বিবেচনা করে বাংলাদেশ সফর স্থগিত করে। জাতীয় দলকে খেলতে পাঠায়নি। আরেকবার অনুর্ধ-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপে যুব দলকে বাংলাদেশে পাঠায়নি। যে সফরটি করতে আসেনি অস্ট্রেলিয়া, সেটি ২০১৭ সালের জুলাইয়ে অথবা সেপ্টেম্বরে হওয়ার আশ্বাস মিলেছিল। কিন্তু সেটিও ভেস্তে যেতে পারে।

টেস্ট সিরিজ খেলতে বাংলাদেশ সফরের কথা রয়েছে অস্ট্রেলিয়া জাতীয় ক্রিকেট দলের। তবে গুলশান হামলার প্রেক্ষিতে ওই সফরটি আশঙ্কার মুখে পড়ে গেছে। সিএ জানিয়েছে, ‘ওই সফরের বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করা হচ্ছে। আবারও নিরাপত্তা পর্যবেক্ষক দল পাঠানো হবে। তারপরই সফরের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।’ নিরাপত্তার অজুহাতে সিএ ২০১৫ সালের অক্টোবরে বাংলাদেশ সফর স্থগিত করে। পরে চলতি বছরের জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারিতে বাংলাদেশের মাটিতে অনুষ্ঠিত আইসিসি অনুর্ধ-১৯ বিশ্বকাপেও অংশ নেয়নি দেশটি। তবে গত বছর স্থগিত হওয়া সফরটি খেলতে আগামী বছরই (২০১৭ সাল) বাংলাদেশে আসার আগ্রহ প্রকাশ করেছিল সিএ। জুলাই কিংবা সেপ্টেম্বরে সিরিজ আয়োজনের কথাও চলছিল। এবার আগামী বছর অনুষ্ঠিতব্য ওই সফরটিও পড়েছে অনিশ্চয়তার মুখে। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার এক মুখপাত্র বলেন, অস্ট্রেলিয়া টিম ও কর্মকর্তাদের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে আমরা বাংলাদেশ সফরের বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করছি। আমরা নিরাপত্তা পর্যবেক্ষকদের সঙ্গে আলোচনা করব। ভবিষ্যতে বাংলাদেশ সফরে ঝুঁকি রয়েছে কিনা সে বিষয়টি বিবেচনা করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। তবে মুখপাত্র এও বলেছেন, আমরা বাংলাদেশে মানুষের আশার বিষয়টি জানি। তাই যত দ্রুত সম্ভব সফরটি যেন হয়, তা নিয়ে ভাবনাও আছে। অবশ্য অস্ট্রেলিয়ার গণমাধ্যম থেকে যতদূর বোঝা যাচ্ছে, এবার সিএ নিরাপত্তার চেয়েও বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালক শেখ সোহেলের করা মন্তব্যকে। সম্প্রতি শেখ সোহেল বলেছেন, আসলে কয়েকটা দল আমাদের এখানে আসতে বরাবরই অজুহাত খুঁজে। গত বছর কোন কারণ ছাড়াই নিরাপত্তার অজুহাত দাঁড় করিয়ে বাংলাদেশ সফর বাতিল করে অস্ট্রেলিয়া। এমনকি অনুর্ধ-১৯ বিশ্বকাপেও দল পাঠায়নি তারা। সঙ্গে যোগ করেন, অস্ট্রেলিয়া না এলেও বাংলাদেশে অনুর্ধ-১৯ দল পাঠিয়েছিল ইংল্যান্ড। তারা সিনিয়র দলও পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আশা করি সফর ঠিকঠাকই হবে। ইংল্যান্ড এ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক বেশ ভাল। তারপরও আমাদের অপেক্ষা করতে হবে। তারা কী প্রতিক্রিয়া জানায়, সেটা আগে জানতে হবে। এখন হাতে অনেক সময় আছে। আশা করি সমস্যা হবে না। আমরা সবসময়ই সফলভাবে সিরিজ বা টুর্নামেন্টে আয়োজন করে এসেছি।

সোহেলের এ মন্তব্যের পরই সিএর এক মুখপাত্র কড়া ভাষায় জবাব দেন। বলেন, নিরাপত্তাজনিত কারণে বাংলাদেশ সফর স্থগিত করার সিদ্ধান্তে আমরা অটল থাকব। বোঝাই যাচ্ছে, সোহেলের কড়া মন্তব্যতে চটেছেন সিএ কর্মকর্তারা! এখন দেখা যাক, শেষ পর্যন্ত কী হয়।