২০ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কাওড়াকান্দি ঘাটে যাত্রী ও পরিবহনর জন্য ফেরির অপেক্ষা

কাওড়াকান্দি ঘাটে যাত্রী ও পরিবহনর জন্য ফেরির অপেক্ষা

নিজস্ব সংবাদদাতা, মাদারীপুর ॥ পাল্টে গেছে দৃশ্যপট। ঈদের ছুটি শেষে গত দু’দিন ধরেই রাজধানী ঢাকায় ফিরছে দক্ষিণাঞ্চলের ২১ জেলার মানুষে। রাজধানী ঢাকার সাথে যোগাযোগের অন্যতম ব্যস্ত নৌপথ মাদারীপুর জেলার শিবচরের কাওড়াকান্দি-শিমুলিয়া নৌ-রুটে যাত্রীদের ভীড় নেই। টানা ৯ দিনের ছুটি আর সরকারের সময়োচিত পদক্ষেপের কারণে এবার ঈদে যাতায়াতে নেই কোন বিড়ম্বনা। যাত্রী হয়রানী, সড়ক মহাসড়কে যানজট এসবের কিছুই নেই। বিগত বছরগুলোর মতো কাওড়াকান্দি ঘাটে সেই চিরচেনা ভিড় আর ব্যস্ততার দৃশ্য চোখে পড়ে না। পরিবহনের জন্য যাত্রীদের অপেক্ষা নেই-পরিবহন রয়েছে যাত্রীদের অপেক্ষায়। এ দৃশ্য সাধারণত দেখা যায় না। তবে এ দৃশ্য মূহূর্তে পাল্টে যেতে পারে। কাওড়াকান্দি-শিমুলিয়া নৌরুটে লঞ্চঘাট ও স্পিডবোট ঘাটের চিত্র একটু ভিন্ন হলেও কোন ধরণের তাড়াহুড়ো নেই।

রবিবার সকালে বিআইডব্লিউটিসির কাওড়াকান্দি ঘাটের ব্যবস্থাপক আবদুস সালাম মিয়া বলেন, ‘ঈদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এখন যাত্রীদের রাজধানীতে যাওয়ার পালা। শিমুলিয়া থেকে খালি ফেরি এনে কাওড়াকান্দি ঘাটে অপেক্ষমান রাখা হচ্ছে। কাওড়াকান্দি ঘাটে যাত্রীদের জন্য ফেরি অপেক্ষা করছে। এ কারণে কাওড়াকান্দি ঘাটে যাত্রীদের এসে অপেক্ষা করতে হচ্ছে না। যাত্রী ও পরিবহনের জন্য ঘাটে ফেরি অপেক্ষা করছে। পরিবহন বা যাত্রীদের তেমন চাপ নেই। তবে ঈদের ছুটি শেষে কর্মস্থলে ফেরার চাপ আবার বাড়বে। ছুটি শেষ হওয়ার প্রথম দিনেই যাত্রীদের ভিড় দেখা গেছে কাওড়াকান্দি ঘাটে। যাত্রীদের পারাপার নিশ্চিত করতে নৌরুটে ৭৭টি লঞ্চ, দু‘শতাধিক স্পিডবোটের পাশাপাশি চারটি রোরো ফেরিসহ ১৭টি ফেরি চলাচল করছে। আবহাওয়া বৈরি হলে ফেরিতেও উল্লেখযোগ্য সংখ্যক যাত্রী পার করা হবে।’