২২ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আড়াই মাসের শিশু সন্তানকে হত্যা করলো বাবা

স্টাফ রিপোর্টার, গাজীপুর ॥ গাজীপুরের কালিয়াকৈরে দাম্পত্য কলহের জের ধরে আড়াই মাসের শিশু সন্তানকে হত্যা করেছে তার পাষন্ড বাবা। পুলিশ নিহতের বাবাকে গ্রেফতার করেছে। এঘটনায় স্বামীকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছে নিহতের মাতা খাদিজা বেগম। নিহত শিশুর নাম আরাফাত হোসেন ওরফে সানি। সে ময়মনসিংহের ত্রিশাল থানার ত্রিশাল উজানগাঁও এলাকার জাহাঙ্গীর আলমের (২৮) ছেলে।

কালিয়াকৈর থানার এসআই আতিকুর রহমান রাসেল জানান, গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার সাকাশ্বর এলাকার হবি উল্লাহ এর বাড়িতে স্ত্রী খাদিজা বেগম ও আড়াই মাস বয়সের একমাত্র সন্তান আরাফাত হোসেনকে নিয়ে ভাড়ায় থেকে জাহাঙ্গীর আলম (২৮) এলাকায় টমটম (নছিমন) গাড়ী চালাতো। বেশ কিছুদিন ধরে মাদকাসক্ত জাহাঙ্গীরের সঙ্গে তার স্ত্রীর দাম্পত্য কলহ চলে আসছিল।

শনিবার দিবাগত রাত ২টার দিকে ছেলেকে দুধ খাইয়ে খাদিজা ঘুমিয়ে পড়ে। রবিবার সকালে ঘুম থেকে জেগে ছেলেকে মৃত অবস্থায় দেখতে পায় খাদিজা। এসময় নিহত শিশুর নাক ও মুখ দিয়ে রক্ত ঝরছিল। খুনের এঘটনা নিয়ে এলাকাবাসির সন্দেহ হলে তারা তারা নিহতের বাবা ও মা’কে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য শহীদ তাজ উদ্দিন আহমেদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। এ ব্যাপারে নিহতের বাবা ও মা’কে থানায় নিয়ে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করে। জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে শিশু ছেলেকে বালিশ চাপা দিয়ে শ^াসরোধ করে হত্যার কথা পুলিশের কাছে স্বীকার করে জাহাঙ্গীর। এঘটনায় খাদিজা বেগম বাদী হয়ে তার স্বামীকে আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করেছে। পুলিশ ঘাতক জাহাঙ্গীর আলমকে (২৮) গ্রেফতার করেছে।

নিহতের মা খাদিজা বেগম ও স্বজনরা জানায়, প্রায় আড়াই বছর আগে ময়মনসিংহের ত্রিশাল থানা এলাকার ইসমাইল হোসেনের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম (২৮) নওগাঁও গ্রামের নজরুল ইসলামের মেয়ে খাদিজা বেগমকে বিয়ে করে। তারা কালিয়াকৈর উপজেলার সাকাশ্বর এলাকার ভাড়া বাসায় থাকে। প্রায় ৬ মাস আগে থেকে জাহাঙ্গীরের সঙ্গে স্থানীয় এক নারীর সঙ্গে পরকিয়া প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এঘটনাকে কেন্দ্র করে মাদকাসক্ত জাহাঙ্গীরের সঙ্গে খাদিজার প্রায়শঃ ঝগড়া বিবাদ হতো। এর জের ধরে শিশু আরাফাত খুন হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।