১৮ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঋণ আমানতের সুদহার বেড়েছে ২৬ ব্যাংকের

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ বিনিয়োগের অন্যতম বাধা ঋণের উচ্চ সুদহার কমিয়ে আনতে দেশের রাষ্ট্রায়ত্ত, বেসরকারি ও বিদেশী ব্যাংকগুলোকে অনেক দিন ধরে তাগাদা দিয়ে আসছে বাংলাদেশ ব্যাংক। একই সঙ্গে ব্যাংকে আমানতকারীদের স্বার্থ সুরক্ষায় আমানতের সুদহার যুক্তিসঙ্গত মাত্রায় রাখার নির্দেশনাও রয়েছে। এছাড়া ঋণ ও আমানতের সুদহারের ব্যবধান (স্প্রেড ) ৫ শতাংশের নিচে নামিয়ে আনতে কয়েক দফায় নির্দেশনা দিয়েছেও কেন্দ্রীয় ব্যাংক। তা সত্ত্বেও স্প্রেড না কমিয়ে উল্টো বাড়িয়ে চলছে ব্যাংকগুলো। বাংলাদেশ ব্যাংকের স্প্রেড প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে এসব তথ্য পাওয়া গেছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, গত এপ্রিল পর্যন্ত স্প্রেড ৫ শতাংশের উপরে ছিল ২৫টি ব্যাংকের। তবে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনা আমলে নিয়ে মে মাসে স্প্রেড ৫ শতাংশের নিচে নামিয়ে এনেছে বেসরকারি খাতের এক্সিম ব্যাংক ও বিদেশী কমার্শিয়াল ব্যাংক অব সিলন। আর নির্দেশনা এখনো আমলে নেয়নি ২৩টি ব্যাংক। একই সময়ে দেশের মোট ৫৬টি ব্যাংকের মধ্যে ২৬টি ব্যাংকেরই স্প্রেড বেড়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের স্প্রেড প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে দেখা যায়, এপ্রিলে ব্যাংকগুলোর স্প্রেডের গড় হার ৪ দশমিক ৮৭ শতাংশ থাকলেও মে মাসে তা দশমিক শূন্য ৩ শতাংশ বেড়ে ৪ দশমিক ৯০ শতাংশে দাঁড়িয়েছে। এর আগে মার্চে ব্যাংকগুলোর গড় স্প্রেড হার ছিল ৪ দশমিক ৮৬ শতাংশ ও ফেব্রুয়ারিতে ছিল ৪ দশমিক ৮১ শতাংশ। অর্থাৎ ব্যাংক স্প্রেড কমিয়ে আনার জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা সত্ত্বেও গত চার মাসে স্প্রেড বেড়েছে দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ। বাংলাদেশ ব্যাংকের ৩১ মে’র প্রতিবেদন অনুযায়ী, রাষ্ট্রায়ত্ত ও বিশেষায়িত ব্যাংকগুলোর মধ্যে একমাত্র অগ্রণী ব্যাংকের স্প্রেড নির্ধারিত মাত্রার চেয়ে বেশি। গত এপ্রিলে ব্যাংকটির স্প্রেড ৫ দশমিক ২৮ শতাংশ থাকলেও মে মাসে তা ৫ দশমিক ৩৮ শতাংশে দাঁড়িয়েছে।