১৭ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পিস টিভি বন্ধের সিদ্ধান্তে সরকারকে ইসলামী দল ও সংগঠনের অভিনন্দন

পিস টিভি বন্ধের সিদ্ধান্তে সরকারকে ইসলামী দল ও সংগঠনের অভিনন্দন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ জঙ্গীবাদ ও সাম্প্রদায়িক উস্কানী দেয়ার অভিযোগে কথিত ধর্মীয় জাকির নায়েকের পিস টিভির সম্প্রচার বন্ধের সিদ্ধান্তে সরকারকে অভিনন্দন জানিয়েছে বিভিন্ন ইসলামী দল ও সংগঠন। আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআত বাংলাদেশ, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট, বাংলাদেশ ইসলামী যুবসেনা, বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনার নেতৃবৃন্দ সরকারকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেছেন, বাংলাদেশ থেকে যেসব আলোচক পিস টিভির অনুষ্ঠানে গিয়ে জঙ্গিবাদের পক্ষে কথা বলেছেন তাদের বিচারের আওতায় আনতে হবে। পিস পাবলিকেশন ও পিস স্কুলও নিষিদ্ধ করতে হবে।

জঙ্গীবাদের উস্কানীদাতা ভারতের বির্তকিত জাকির নায়েকের পরিচালনাধীন পিস টিভির সম্প্রচার বন্ধের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করায় সরকারকে আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআত বাংলাদেশের নির্বাহী চেয়ারম্যান আল্লামা অধ্যক্ষ শেখ আব্দুল করিম সিরাজনগরী ও নির্বাহী মহাসচিব আল্লামা মাসউদ হোসাইন আল কাদেরী এক বিবৃতিতে অভিনন্দন জানিয়েছেন। তারা বলেছেন, বাংলাদেশের কোটি কোটি শান্তিকামী, ধর্মপ্রাণ নাগরিকের দাবীর মুখে পিস টিভি বন্ধ করা হল। তবে এখনো হাজার হাজার জঙ্গীবাদের উস্কানী মূলক বক্তব্য ইউটিউবিতে ছড়িয়ে আছে। এ গুলোকে ইউটিউবি থেকে অপসারনসহ পিস পাবলিকেশন ও পিস স্কুল বন্ধ করা অপরিহার্য। জাকির নায়েকের পরিচালনাধীন পিস টিভির সম্প্রচার বন্ধের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করায় বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের চেয়ারম্যান আল্লামা এম.এ.মান্নান, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব স.উ.ম.আব্দুস সামাদ ও সাংগঠনিক সচিব আ.ন.ম. মাসউদ হোসাইন আল কাদেরী এক যুক্ত বিবৃতিতে সরকার অভিনন্দন জানিয়েছেন। তারা বিবৃতিতে বলেন- শুধু পিস টিভি বন্ধ করলেই চলবে না। পিস পাবলিকেশন, পিস স্কুল বন্ধ করাসহ ওদরে পৃষ্ঠপোষক এবং মতাদর্শ লালনকারীদেরকে চিহিৃত করে বিচারের আওতায় আনতে পারলেই বাংলাদেশ থেকে জঙ্গীবাদকে স্বমুলে নির্মুল করা সম্ভব।

ধর্মের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টিকারী জাকির নায়েকের পরিচালনাধীন পিস টিভির সম্প্রচার বন্ধের সিদ্ধান্তকে বাংলাদেশ ইসলামী যুবসেনার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মুহাম্মদ ফিরোজ আলম ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ মোস্তফা জিলানী অভিনন্দন জানিয়েছেন। তারা বলেন, কেবল পিস টিভি বন্ধ করাই যথেষ্ট নয়। বাংলাদেশ থেকে যে সকল আলোচক পিস টিভির অনুষ্ঠান সমূহে অংশ গ্রহণ করতেন তাদেরকেও জিজ্ঞাসাবাদের আওতায় আনা দরকার এবং পিস পাবলিকেশন, পিস স্কুলও বন্ধ করা এখন সময়ের দাবী। পিস টিভির সম্প্রচার বন্ধের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করায় সরকারকে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনার সভাপতি মুহাম্মদ নুরুল হক চিশতী ও সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ ছাদেকুর রহমান খান এক বিবৃতিতে অভিনন্দ জানিয়ে বলেন- পিস টিভি বন্ধ হলেও ওদের মতাদর্শের ধারক বাহকদের ইসলামের অপব্যাখ্যা আর দেশ বিরোধী বক্তব্য এখনো বন্ধ হয়নি। তাছাড়া পিস পাবলিকেশন ও পিস স্কুলের মাধ্যমে হাজার হাজার নিবরাস ইসলাম আর রোহান তৈরী করা হচ্ছে বাংলাদেশকে পাকিস্তান ও আফগানিস্তান বানানোর জন্য। আর তাই পিস টিভির দেশদ্রোহী আলোচকগংদের গ্রেফতার এবং পিস পাবলিকেশন ও পিস স্কুল নিষিদ্ধের জোর দাবী জানান নেতৃবৃন্দ।