২০ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ভুয়া বিয়ের দায়ে যুবক কারাগারে

নিজস্ব সংবাদদাতা, বরগুনা, ১০ জুলাই ॥ ঢাকা থেকে বরগুনায় পালিয়ে এসে কথিত বিয়ের নামে একত্রে বসবাসের অভিযোগে জামাল নামে এক যুবককে পাঠানো হয়েছে কারাগারে। শনিবার রাতে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে কথিত বর জামাল হাওলাদারকে (২৪) এক মাসের কারাদ- ও ১ হাজার টাকা জরিমানা করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। সেই সঙ্গে কিশোরী মৌসুমীকে (১২) করা হয়েছে ১ হাজার টাকা জরিমানা এবং দেয়া হয়েছে পুলিশ হেফাজতে। ম্যাজিস্ট্রেট মীর আলিফ রেজা তাদের এ দ-াদেশ দিয়েছেন।

সদর উপজেলার পাজরাভাঙ্গা গ্রামের মজিবর হাওলাদারের ছেলে জামাল হাওলাদার জানিয়েছেন, সে ঢাকা শহরে গাড়ি চালায়। তার সঙ্গে জামালপুর জেলার মৌসুমী নামে ওই কিশোরীর পরিচয় হয়েছে। বিয়ের কথা বলে ঈদের দুদিন আগে ঢাকার আগারগাঁও থেকে কিশোরীকে নিয়ে জামাল বরগুনায় চলে আসে। কথিত বিয়ের নামে তারা একত্রে বসবাস করলেও শনিবার রাতে তাদের শরিয়ত মোতাবেক বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। তার আগেই জেলা প্রশাসক ড. মহা. বশিরুল আলম তাদের পালিয়ে আসার খবর শুনে ইউনিয়ন চেয়ারম্যানকে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন। ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম আহাদ সোহাগ রাতেই গ্রাম পুলিশ পাঠিয়ে তাদের ইউনিয়ন পরিষদে নিয়ে আসেন।

শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন

স্টাফ রিপোর্টার, গাজীপুর ॥ সদর উপজেলার ভাওয়াল মির্জাপুর বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ২০১৬-১৭ সালের একাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন রবিবার অনুষ্ঠিত হয়েছে। কলেজ মিলনায়তনে এতে অতিথি ছিলেন ভাওয়াল মির্জাপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন দুলাল। কলেজ অধ্যক্ষ মাহমুদুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন কলেজ পরিচালনা পর্ষদের সদস্য দেওয়ান আব্দুর রউফ, সফিকুল ইসলাম, ফজলুল হক মুসল্লি, এমদাদুল হক মুসল্লি, সহকারী অধ্যাপক আলী নেওয়াজ ভূয়া প্রমুখ।

সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল এগিয়েছে আরও একধাপ

স্টাফ রিপোর্টার, সিরাজগঞ্জ ॥ জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা আরও একধাপ এগিয়েছে। হাসপাতালের বিভিন্ন সেবার সঙ্গে সংযোজন হয়েছে কিডনি রোগের ডায়ালাইসিস কার্যক্রম। এর আগে এই হাসপাতালে অপারেশন না করে ল্যাপারোস্কোপি মেশিনে শুধু ফুটো করে পাথর অপসারণ কাজও শুরু করা হয়েছে।

জেলা পর্যায়ের হাসপাতালে কিডনি রোগের ডায়ালাইসিস ও ল্যাপারোস্কোপি মেশিনে শুধু ফুটো করে পাথর অপসারণ এই প্রথম বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে। শনিবার সিরাজগঞ্জ শহরের ধানবান্ধি মহল্লার রবিউল ইসলামের ডায়ালাইসিসের মাধ্যমে এই কার্যক্রম শুরু হয়। সিরাজগঞ্জে শহীদ এম মনসুর আলী সরকারী মেডিক্যাল কলেজের নেপ্রোলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শরিফুল হক রোগীর ডায়ালাইসিস করেন। ল্যাপারোস্কোপি মেশিন পরিচালনা করেন সহকারী অধ্যাপক জাহিদুল ইসলাম।

এই মাত্রা পাওয়া