১৪ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ক্যারিবীয় দ্বীপে বিরাট কোহলির দল

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ চার টেস্টের সিরিজ খেলতে বিরাট কোহলির ভারত এখন ক্যারিবীয় দ্বীপে। এন্টিগায় ২১ জুলাই শুরু প্রথম টেস্ট। তার আগে অতিথিদের দুটি তিনদিনের প্রস্তুতি ম্যাচের প্রথমটি শুরু হয়ে গেছে। সেন্ট কিটসে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড প্রেসিডেন্ট একাদশের বিপক্ষে প্রথম দিন শেষে প্রথম ইনিংসে কোহলিদের সংগ্রহ ৬ উইকেটে ২৫৮ রান। হাফসেঞ্চুরি পেয়েছেন দুই ওপেনার লোকেশ রাহুল (৫০), শিখর ধাওয়ান (৫১) ও রোহিত শর্মা (৫৪*)। তবে টপঅর্ডারের বাকি ব্যাটসম্যানরা সুবিধা করতে পারেননি। কোহলি আউট হন ১৪ রান করে।

দুটি কারণে এই সফর ঘিরে ভারতীয়দের খুব আগ্রহ। প্রথমত, কোচের দায়িত্ব নেয়ার পর সাবেক তারকা অনিল কুম্বলের প্রথম পরীক্ষা।

পাশাপাশি সাদা পোশাকের নেতৃত্বে উপমহাদেশের বাইরে চ্যালেঞ্জ প্রথম চ্যালেঞ্জ ‘অধিনায়ক’ কোহলির। ঘরের মাটিতে দুর্ধর্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা ও লঙ্কায় গিয়ে প্রতিপক্ষকে নাস্তানাবুদ করে তার নেতৃত্বের শুরুটা হয়েছে দারুণ। বিরূপ কন্ডিশনে কোহলি-কুম্বলের নতুন জুটি কেমন করে, সেটি দেখতেই মুখিয়ে সবাই। কোহলি আগ্রাসী ক্রিকেটার, আগ্রাসী অধিনায়ক। এরই মধ্যে তার এই আগ্রাসনকে সমর্থন জানিয়েছেন কুম্বলে। ‘আমি তার আগ্রাসন পছন্দ করি। এ বিষয়ে তার সঙ্গে আমার তেমন পার্থক্য নেই। আমিও আগ্রাসী ছিলাম। কারও স্বাভাবিক আগ্রাসন নিয়ন্ত্রণের পক্ষে নই আমি।’

টেস্ট-ওয়ানডে দুই ভার্সনেই ভারত ইতিহাসের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি কুম্বলে জাতীয় দলের প্রধান কোচের দায়িত্ব গর্বিত। তার আশা, নতুন শিষ্যরাও দেশাত্ববোধে উদ্বুদ্ধ হয়ে মাঠে নামবে, ‘আমরা সবাই জানি, ভারতের দূতের ভূমিকা পালন করা আর ভারতীয় ক্রিকেট দলের অংশীদার হতে পারা কতটা গুরুত্বপূর্ণ। দলের প্রত্যেকে তা বুঝতে পারছে। পারফর্ম করে মাঠেও আমাদের সেটি নিশ্চিত করতে হবে। জ্যামাইকার কিংস্টনে ৩০ জুলাই দ্বিতীয়, গ্রস আইসলেটে ৯ আগস্ট তৃতীয়, আর ১৮ আগস্ট ত্রিনিদাদে শুরু চতুর্থ ও শেষ টেস্ট। সিরিজে কোন ওয়ানডে-টি২০ নেই।