১১ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঘুরে আসুন ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জ

  • খোঁজখবর

কিভাবে যাবেন

প্রকৃতির অপার সৌন্দর্যের লীলাভূমি ক্যারিবিয়ান দ্বীপ রাষ্ট্রগুলো। জ্যামাইকা, বারবাডোজ, হাইতি কিংবা সেন্ট কিটসের সৌন্দর্যের টানে বিভিন্ন দেশের ভ্রমণপিপাসুরা সেখানে ছুটে যায়। সেখানে রয়েছে বিশাল বিশাল বনভূমি আর নীল সাগর ঘেঁষে বড় বড় পাঁচ তারকা হোটেল। বিত্তবানরা নাকি শখ করে বিয়েও করতে যান এসব স্থানে। ইউরোপ আমেরিকার মানুষ সহজেই বিমানের টিকেট কেটে সেখানে পৌঁছাতে পারলেও বাংলাদেশ থেকে বারবাডোস কিংবা সেন্ট কিটসে পৌঁছাতে হলে পাসপোর্টের সঙ্গে নির্দিষ্ট দেশের ভিসা লাগিয়ে নিতে হয়। কিন্তু সমস্যা এখানে নয়, সমস্যা হচ্ছে- বাংলাদেশে এসব দেশের দূতাবাস নেই। বর্তমানে বাংলাদেশে বিশ্বের ৪০টি দেশের দূতাবাস আছে। যেখানে কেবল ওই সব দেশের ভিসার জন্য আবেদন করা যায়। সেসব দেশের দূতাবাস আমাদের দেশে নেই, সে ক্ষেত্রে সাধারণত আবেদনকারীকে ভিসার জন্য তৃতীয় কোন দেশে গিয়ে আবেদন করতে হয়। তবে এই প্রক্রিয়ায় ভিসা প্রসেস যতটা সময়সাপেক্ষ তার চেয়েও বেশি জটিল। এই ক্ষেত্রে অনেক সময় যথাযথ প্রসেসিং এবং সঠিক তথ্যের অভাবে ভ্রমণকারীদের ভিসা আবেদন বাতিলও হয়ে যায়। প্রায় ১৭০টি দেশে ভিসা ছাড়া ভ্রমণ করার সুযোগ বাংলাদেশী নাগরিকদের নেই। অবশ্য উন্নত দেশের নাগরিকদের ক্ষেত্রে ব্যাপারটি ভিন্ন। তারা বহু দেশে ভিসা ছাড়া কেবল পাসপোর্ট বা আইডি কার্ড নিয়েই ভ্রমণ করতে পারেন। সঠিক তথ্যগত স্বল্পতার কারণে বাংলাদেশী ভ্রমণকারীদের নানা সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। এই ক্ষেত্রে ঠওঝঅঞযরহম! নামের একটি ওয়েবসাইট ভিসা সংক্রান্ত তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করে যাচ্ছে। যে কেউ এই ওয়েবসাইট থেকে বিভিন্ন দেশের ভিসা সংক্রান্ত তথ্য ও ডকুমেন্ট চেক করতে পারেন। উল্লেখ্য, এখন আর ভিসার জন্য আবেদনকারীকে তৃতীয় কোন দেশে ভ্রমণ করতে হবে না। এই ক্ষেত্রে সহযোগিতা করছে ভিসা থিং। প্রতিষ্ঠানটির অপারেশনাল হেড বলেছেন, বাংলাদেশী নাগরিকদের জন্য আন্তর্জাতিক ভ্রমণ সংক্রান্ত ঝামেলা কমানোই আমাদের উদ্দেশ্য। বাংলাদেশী নাগরিকরা যেন ভ্রমণপূর্ব প্রতিবন্ধকতা ছাড়াই বিশ্ব ভ্রমণ করতে পারেন সে ব্যাপারে সহযোগিতা করাই আমাদের লক্ষ্য। বিস্তাারিত জানতে ভিজিট করুন : অথবা ফোন কারুন ০১৭৫৫৫১৩৮০৪। ww w.visathing.com,

ভ্রমণ ডেস্ক