১৭ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

প্রধানমন্ত্রী প্রতিশ্রুত পায়রা সেতু নির্মাণের প্রক্রিয়া শুরু

  • স্থান পরিদর্শনে প্রতিনিধিরা

নিজস্ব সংবাদদাতা, পটুয়াখালী, ৩ নবেম্বর ॥ প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখে আলোচিত পটুয়াখালীর স্কুলশিক্ষার্থী শীর্ষেন্দুর স্বপ্নের সেতু পায়রা বাস্তবায়নের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। সেতু বিভাগ ইতোমধ্যে সেতুর এলাকা পায়রা কুঞ্জে তাদের সমীক্ষা শেষ করেছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় সেতু বিভাগের যুগ্ম-সচিব আলীম উদ্দিন আহমেদের নেতৃত্বে সাত সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল সমীক্ষা করা পায়রা কুঞ্জ এলাকা পরিদর্শন করেছে। এ সময় পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান আবু বকর সিদ্দিক ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদ পারভেজ মজুমদার উপস্থিত ছিলেন।

সড়ক ও জনপথ সূত্রে আরও জানা যায়, সেতুটি হবে দুই লেনের, যার দৈর্ঘ্য মূল সেতু ১৩৭৫ মিটার (বক্স গার্ডার) এবং প্রস্থ ফুটপাথসহ ১০ দশমিক ৭৬ মিটার। ভার্টিক্যাল ক্লিয়ারেন্স (নির্বিঘ্নে নৌ চলাচলের জন্য প্রয়োজনীয় উচ্চতা) ১৮ দশমিক ৩০ মিটার এবং হরাইজন্টাল ক্লিয়ারেন্স (দুই স্প্যানের মধ্যবর্তী স্থান) ৯০ মিটার।

পরিদর্শন শেষে সাত সদস্যের প্রতিনিধি দলের প্রধান সেতু বিভাগের যুগ্ম-সচিব আলীম উদ্দিন আহমেদ জানান, পায়রা বন্দর থেকে মংলা-খুলনা এলাকার যোগাযোগ তথা অত্র এলাকার সার্বিক উন্নয়নের বাস্তব রূপ দিতে এবং সর্বোপরি এ এলাকার মানুষের যোগযোগের জন্য ব্রিজ নির্মান করা খুবই জরুরী।

প্রতিনিধি দলের সদস্যরা হলেন- বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষের প্রধান প্রকৌশলী কবির আহমেদ, সেতু বিভাগের যুগ্ম-সচিব মোঃ সামসুজ্জামান, সেতু বিভাগের উপ-সচিব মোঃ রেজাউল হায়দার, সেতু বিভাগের উপ-সচিব মোঃ জাকির হোসেন, বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ ওয়াহিদুজ্জামান ও বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আবুল হোসেন।