১১ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

টানা তিন দিনে সূচক কমেছে ২০৪ পয়েন্ট

টানা তিন দিনে সূচক কমেছে ২০৪ পয়েন্ট

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ মঙ্গলবারও বড় দরপতনে উভয় শেয়ারবাজারের লেনদেন শেষ হয়েছে। এদিন প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স কমে ৫ হাজার ৬২৩ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। এর মাধ্যমে ডিএসইএক্স ৮ মাস ২১ দিন আগের অবস্থানে নেমে গেছে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। দিনটিতে শুধুমাত্র নতুন তালিকাভুক্ত কুইন সাউথ টেক্সটাইল ছাড়া কোন কোম্পানির শেয়ারই বিনিয়োগকারীদের আকৃষ্ট করতে পারেনি। এই অব্যাহত পতনে শেষ তিন দিনে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২০৪ পয়েন্ট কমেছে এবং সিএসইর সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৫৮৬ পয়েন্ট কমেছে।

এদিন ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৮১ পয়েন্ট কমে ৫ হাজার ৬২৩ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। যা বিগত ৮ মাস ২১ দিন বা ১৭৮ কার্যদিবসের মধ্যে সর্বনিম্ন। এর আগে ২০১৭ সালের ২২ জুন ডিএসইর ডিএসইএক্স ৫ হাজার ৫৯৯ পয়েন্টে ছিল।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআইও ৮ মাস ২১ দিন বা ১৭৮ কার্যদিবসের মধ্যে সর্বনিম্ন অবস্থানে নেমে গেছে। সিএএসপিআই ২৩৩ পয়েন্ট কমে ১৭ হাজার ৪১৫ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। এর আগে ২০১৭ সালের ২২ জুন সিএএসপিআই ১৭ হাজার ৩৪২ পয়েন্টে ছিল।

ডিএসইর অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ১৭ ও ডিএসই-৩০ সূচক ২১ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১ হাজার ৩৩৩ ও ২ হাজার ৮৫ পয়েন্টে। সিএসইর অন্য সূচকগুলোর মধ্যে সিএসই-৫০ সূচক ১৭, সিএসই-৩০ সূচক ১১৫, সিএসসিএক্স ১৩৭ ও সিএসআই ১৪ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১ হাজার ৩০৯, ১৫ হাজার ৯১৫, ১০ হাজার ৫১৬ ও ১ হাজার ১৮২ পয়েন্টে।

এদিন ডিএসইতে হাত বদল হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে ১৮টির বা ৫ শতাংশ কোম্পানির। আর কমেছে ২৯১টির বা ৮৭ শতাংশের এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৭টির বা ৮ শতাংশের। এদিন ডিএসইতে টাকার পরিমাণে লেনদেন আগের দিন থেকে কিছুটা কমেছে। ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২৮২ কোটি টাকা। যার পরিমাণ আগের দিন ছিল ২৯৮ কোটি টাকা।

সিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে ২৩টির বা ১০ শতাংশের, দর কমেছে ১৮৯টির বা ৮২ শতাংশের এবং ১৮টির বা ৮ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর অপরিবর্তিত রয়েছে। সিএসইতে ২৬ কোটি ৩৬ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। যা আগের দিন থেকে ২১ কোটি টাকা বেশি।