২০ জুন ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নেত্রকোনায় বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেল দুই স্কুল ছাত্রী

নেত্রকোনায় বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেল দুই স্কুল ছাত্রী

নিজস্ব সংবাদদাতা, নেত্রকোনা ॥ উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে দুই কিশোরীর বাল্যবিয়ে বন্ধ হয়েছে। বাল্যবিয়ের হাত থেকে মুক্ত এই কিশোরীরা হচ্ছে কলমাকান্দা উপজেলার লেঙ্গুরা ইউনিয়নের গোড়াগাঁও গ্রামের আমেনা খাতুন পলি(১৪) ও বারহাট্টা উপজেলার সাহতা ইউনিয়নের মধুপুর গ্রামের রনি আক্তার (১৪)।

জানা গেছে, কলমাকান্দার লেঙ্গুরা ইউনিয়নের গোড়াগাঁও গ্রামের বাদশা মিয়ার মেয়ে আমেনা খাতুন পলি স্থানীয় একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অষ্টম শ্রেণিতে পড়ে। সম্প্রতি তার অভিভাবকরা একই ইউনিয়নের চৈতানগর গ্রামের হাবিবুর রহমানের ছেলে মনিরুল ইসলাম সুমনের (২৫) সঙ্গে তার বিয়ে ঠিক করেন। আগামী শুক্রবার তার বিয়ে সম্পন্ন হবার কথা ছিল। স্থ্ানীয় একটি উন্নয়ন সংস্থার কর্মীরা এ আয়োজনের খবর পেয়ে প্রথমে মেয়েটির অভিভাবকদের বাল্যবিয়ের কুফল সম্পর্কে অবগত করেন। কিন্তু এরপরও অভিভাবকরা বিয়ে বন্ধে রাজি না হওয়ায় তারা বিষয়টি স্থানীয় উপজেলা প্রশাসনকে জানান। পরে ইউএনও মোঃ আরিফুজ্জামান মেয়েটির অভিভাবকদের তার কার্যালয়ে ডেকে এনে বিয়েটি বন্ধের নির্দেশ দেন।

অন্যদিকে বারহাট্টার সাহতা ইউনিয়নের মধুপুর গ্রামের রনি আক্তারও স্থানীয় একটি মাদ্রাসায় অষ্টম শ্রেণিতে পড়ে। কয়েকদিন আগে তার বাবা-মা ময়মনসিংহের গফরগাও উপজেলার এক যুবকের (২৫) সঙ্গে তার বিয়ে ঠিক করেন। আগামী বৃহস্পতিবার তার বিয়ে সম্পন্ন হবার কথা ছিল। গোপনসূত্রে এ খবর পেয়ে স্থানীয় ইউএনও ফরিদা ইয়াসমিন সোমবার সন্ধ্যায় লোক পাঠিয়ে মেয়েটির অভিভাবকদের তার কার্যালয়ে ডেকে আনেন। পরে তাদের বাল্যবিয়ের কুফল সম্পর্কে অবগত করে বিয়েটি বন্ধের নির্দেশ দেন।