১১ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

গুলিস্থানে অস্ত্র উঁচিয়ে গুলি ॥ দুই ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র

গুলিস্থানে অস্ত্র উঁচিয়ে গুলি ॥ দুই ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর গুলিস্থানে হকার উচ্ছেদের সময় অস্ত্র উঁচিয়ে গুলির ঘটনায় শাহবাগ থানার ‘হত্যাচেষ্টা’ মামলায় ছাত্রলীগের দুই নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দিয়েছে পুলিশ।

শাহবাগ থানার এসআই আকরাম হোসেন গত ১১ এপ্রিল ঢাকার মহানগর হাকিম আদালতে এই অভিযোগপত্র দিলেও বিষয়টি রবিবার সকালে সংবাদমাধ্যমকর্মীদের কাছে প্রকাশ পায়।

এ মামলার দুই আসামি হলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাব্বির হোসেন এবং ওয়ারী থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান।

দেড় বছর আগে গুলিস্তান পাতাল মার্কেট এলাকায় হকার উচ্ছেদের সময় সিটি করপোরেশনের কর্মচারীদের সঙ্গে থাকা সাব্বির ও আশিকের গুলি ছোড়ার ছবি প্রকাশ পেলে তাদের বহিষ্কার করে ছাত্রলীগ।

সাব্বির ও আশিক দুজনেই এ মামলায় জামিনে ছিলেন। রবিবার সকালে তারা আদালতে হাজির হয়ে জামিন বাড়ানোর আবেদন করলে মহানগর হাকিম গোলাম নবী তা মঞ্জুর করেন বলে জানান এসআই মাহমুদুর।

২০১৬ সালের ২৭ অক্টোবর গুলিস্তান পাতাল মার্কেট এলাকার ফুটপাত থেকে অবৈধ দোকান উচ্ছেদের সময় হকারদের সঙ্গে সিটি করপোরেশনের কর্মচারীদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া এবং সংঘর্ষ হয়।

ওই ঘটনায় ঢাকার গণপরিবহন চলাচলের অন্যতম প্রধান কেন্দ্র গুলিস্তানে প্রায় তিন ঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ থাকে। রাস্তায় মানুষের মধ্যে তৈরি হয় আতঙ্ক; আশপাশের সড়কে সৃষ্টি হয় যানজট।

সংঘর্ষের মধ্যে গোলাপী ফুলহাতা সার্ট পরিহিত সাব্বির রহমানকে রিভালবার উচিয়ে ফাঁকা গুলি করতে দেখা যায়। সে সময় সাব্বিরের পাশে নীল টি-শার্ট পরিহিত আশিকের হাতে দেখা যায় পিস্তল। সেই ছবি পরদিন সংবাদপত্রে ছাপা হয়।

ঘটনাটি তখন আলোড়ন তোলার পর শাহবাগ থানার এসআই আব্দুল মান্নান বাদী হয়ে মামলা করেন। তাতে সাব্বির ও আশিকের বিরুদ্ধে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ করা হয়।

একই ঘটনায় মহানগর নাট্যমঞ্চের পাশের ফুটপাতের দোকানি মো. সিরাজ বাদী হয়ে পল্টন থানায় আরেকটি মামলা করেন।

তখন আওয়ামী লীগের নেতারা বলেছিলেন, অস্ত্রধারী যে দলেরই হোক কেন, তারা ছাড় পাবেন না।