২০ জুলাই ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বাউফলে আ’লীগ কার্যালয়সহ ৪টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভাংচুর

বাউফলে আ’লীগ কার্যালয়সহ ৪টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভাংচুর

নিজস্ব সংবাদদাতা, বাউফল ॥ নওমালা ইউনিয়নের নগরের হাট এলাকায় শাসক দলের দুই পক্ষের মধ্যে (বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান) হামলা-পাল্টা হামলা হয়েছে। এ সময় কাবিল মৃধা নামের এক যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের (একাংশের) কার্যালয়সহ জাহাঙ্গীরের খাবার হোটেল, শাহিনের গার্মেন্টস, শাহজাহান খলিফা ও জামালের স্টীলের দোকানে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাট করা হয়েছে। সোমবার এ ঘটনা ঘটেছে।

জানা গেছে, নওমালা ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা কাবিল মৃধার সাথে ছাত্রলীগ নেতা আল আমিন মৃধার পূর্ব বিরোধের জের ধরে ঘটনার দিন বেলা সারে ১১টার সময় নগরের হাট হাইস্কুলের সামনের রাস্তায় আলআমিন তার কয়েক সহযোগিদের নিয়ে কাবিল মৃধাকে এলোপাতাড়ি ভাবে কুপিয়ে জখম করে। এ খবর পেয়ে দুপুর ১টার সময় কাবিল মৃধার চাচাতো ভাই আলমগীর ও কবির মৃধার নেতৃত্বে ২০-২৫ জন লাঠিসোটা নিয়ে নগরের হাট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের (একাংশের) কার্যালয়ের ভিতরে ডুকে একটি টেলিভিশনসহ আসবাবপত্র ভাংচুর করে।

এরপর তারা ওই ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান শাহজাদা হাওলাদারের সমর্থক জাহাঙ্গীরের খাবার হোটেল, শাহিনের গামেন্টর্স, শাহজাহান খলিফা ও জামালের স্টীলের দোকানে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট করেছে। হামলাকারীরা ওই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক এ্যাডভোকেট কামাল বিশ্বাসের সমর্থক বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় এলাকায় দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। পরিবেশ শান্ত রাখতে এলাকার বিপুল পরিমান পুলিশ মোতায়তন করা হয়েছে।