২৬ এপ্রিল ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নরসিংদীতে গোলাপ হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন ৬

নরসিংদীতে গোলাপ হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন ৬

স্টাফ রিপোটার, নরসিংদী ॥ নরসিংদীতে চাঞ্চল্যকর গোলাপ হত্যা মামলায় ৬ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড একই সাথে প্রত্যেক আসামীকে দশ হাজার টাকা করে অর্থদন্ড ও অনাদায়ে আরো এক বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত।

সোমবার দুপুরে নরসিংদী অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিজ্ঞ বিচারক একে এম মোজাম্মেল হক চৌধুরী জনাকীর্ন আদালতে এ আদেশ প্রদান করেন।

সাজাপ্রাপ্ত আসামীরা হলো- নরসিংদী সদর উপজেলার মেহেরপাড়া ইউনিয়নের কুড়েরপাড় গ্রামের টকি মাহমুদের ছেলে আনোয়ার হোসেন, আব্দুল আউয়ালের ছেলে মোশারফ হোসেন, ওমর আলীর ছেলে ফিরোজ মিয়া, আব্দুল আউয়ালের ছেলে জুলহাস মিয়া, আমজাত আলীর ছেলে আকবর আলী ও আ: গনি মিয়ার ছেলে সুন্দর আলী।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০০৩ সালের ২১ ফেব্র“য়ারী পাঁচদোনা বাজার হতে ঔষধ নিয়ে নিজ বাড়ি যাবার পথে নিখোঁজ হয় নরসিংদী সদর উপজেলার কুড়েরপাড় গ্রামের সাহাজউদ্দিনের পুত্র গোলাপ হোসেন (৩০)।

নিখোজের ৩দিন পর পাঁচদোনা ব্রহ্মপুত্র নদীর তীরে এক ব্যাক্তির কাটা হাতের একটি অংশ দেখতে পায় স্থানীয়রা। এর পাশে কাদা মাটিতে পুতে রাখা অবস্থায় লাশের কিছু অংশ দেখা যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহত লাশের মাথাসহ ১০ টি টুকরা উদ্ধার করে। পরে নিহত গোলাপের বাড়ীর লোকজন তার লাশ শনাক্ত করে।

এঘটনায় নিহতের বড় ভাই মেহেরপাড়া ইউপি সদস্য মোস্তফা হোসেন বাদী হয়ে নরসিংদী সদর মডেল থানায় ১৫ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নরসিংদী সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক কিশোর কুমার দীর্ঘ তদন্ত শেষে ৭ আসামীর বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। ১৫ স্বাক্ষীর সাক্ষ্য প্রমানে সন্দেহাতীতভাবে তা প্রমানিত হওয়ায় আদালতের বিজ্ঞ বিচারক ৬ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রদান করেন।

একই সাথে হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগ প্রমানিত না হওয়ায় মোস্তাফিজুর নামে এক জনকে বেকসুর খালাস দেন আদালত।