২৩ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মোবাইল আপারেটগুলোকে বকেয়া কর পরিশোধ করতে বললেন এনবিআর চেয়ারম্যান

মোবাইল আপারেটগুলোকে বকেয়া কর পরিশোধ করতে বললেন এনবিআর চেয়ারম্যান

জনকণ্ঠ রিপোর্ট ॥ মোবাইল ফোন অপারেটগুলোকে দ্রুত বকেয়া কর পরিশোধের নির্দেশ দিয়েছেন এনবিআর চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া। কর ও ভ্যাট ফাঁকির অভিযোগে অপারেটগুলোর বিরুদ্ধে যেসব মামলা চলমান রয়েছে সে সব মামলায় দ্রুত নিষ্পত্তিতে আসার আহ্বানও জানিয়েছেন তিনি।

সোমবার বিকালে এনবিআর ভবন মিলনায়তনে মোবাইল অপারেটরদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব মোবাইল টেলিকম অপারেটরস অব বাংলাদেশের (অ্যামটব) সঙ্গে প্রাক বাজেট আলোচনায় এনবিআর চেয়ারম্যান এসব কথা বলেন। এতে অ্যামটবের সহসভাপতি রবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাহতাব উদ্দিন আহমেদসহ অ্যামটব ও এনবিআরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সংগঠনটির পক্ষে এনবিআরের কাছে বেশ কয়েকটি প্রস্তাব তুলে ধরা হয়। এরমধ্যে ইন্টারনেট ব্যবহারের ভ্যাট প্রত্যাহারের প্রস্তাব অন্যতম। বর্তমানে ইন্টারনেট ব্যবহারের ওপর ধার্য করা ২১ দশমিক ৭৫ শতাংশ ( ভ্যাট, এসডি ও সারচার্জ) কর রয়েছে। এছাড়াও মোবাইলফোন বিল উৎসে কর আওতামুক্ত রাখা, দ্বৈতকর পরিহার, কর্পোরেট কর যৌক্তিক পর্যায়ে নিয়ে আসা, অমিমাংসিত ট্যাক্স আপিলের জন্য করের প্রদেয় হার কমানোর প্রস্তাব রয়েছে। একই সাথে ফোর-জি ফোন আমদানিতেও সুবিধা চেয়েছে সংগঠনটি।

জবাবে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, ‘পত্রিকার খবরে প্রায়ই অভিযোগ উঠে আপনারা কর-ভ্যাট ঠিকমতো পরিশোধ করেন না। বকেয়গুলো পেমেন্ট (পরিশোধ) করে দিয়েন। মামলা মোকাদ্দমা গুলোতে বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তিতে (এডিআর) আসেন। বড় বড় প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে মামলা ঝুলে থাকলে রাজস্ব আয় কম হয়। আপনাদেরও সুনাম নষ্ট হয়।’

ইন্টারনেট ব্যবহারের উপর থেকে ভ্যাট প্রত্যাহারে বিষয়ে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, ‘আমরা অন্যান্য ইন্টারনেট প্রোভাইডার সার্ভিসগুলোর সঙ্গেও কথা বলে দেখবো। ভ্যাট প্রত্যাহরের বিষয়টি ভেবে দেখা হবে।’

ফোর- জি হ্যান্ডসেটে বিশেষ সুবিধা চাইলে এনবিআর সদস্য কানন কুমার রায় বলেন, আপনারা ফোর-জি’র কথা বলছেন। গ্রামে তো ঠিকমতো থ্রি-জি’ও পাওয়া যায় না। এর পুরোটাই আপনারদের ব্যবসায়িক চিন্তা-ভাবনা। এতে বাংলালিংকের আবিদ হোসেন খান, তানভীর হোসাইন ও রবির শাহেদ আলম বক্তব্য রাখেন।

নির্বাচিত সংবাদ