১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বার কাউন্সিলে আ.লীগের জয়

বার কাউন্সিলে আ.লীগের জয়

অনলাইন রিপোর্টার ॥ আইনজীবীদের সনদ প্রদানকারী সংস্থা বাংলাদেশ বার কাউন্সিল নির্বাচনে ১৪টি পদের মধ্যে ১২টিতেই জয় পেয়েছে আওয়ামী লীগ সমর্থক আইনজীবীরা। আর ২টি পদে জয় পেয়েছেন বিএনপি সমর্থক আইনজীবীরা।

মঙ্গলবার বেসরকারি ফলাফলে এই তথ্য জানা গেছে। তবে আনুষ্ঠানিক ফলাফল বার কাউন্সিলের চেয়ারম্যান অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ঘোষণা করবেন।

গতকাল সোমবার সারাদেশের ৭৮টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ শেষে রাতেই আলাদা করে কেন্দ্রগুলোতে ফলাফল ঘোষণা করা হয়। সে অনুযায়ী প্রাপ্ত ফলাফল থেকে জানা যায় নির্বাচিত ১৪টি পদের মধ্যে ১২টিতেই সরকারপন্থিরা জয়লাভ করেছে।

এর মধ্যে সাধারণ ক্যাটাগরিতে ৭টি পদের মধ্যে আওয়ামীপন্থি প্যানেল থেকে ছয়জন নির্বাচিত হয়েছেন। এই প্যানেল থেকে সাধারণ ক্যাটাগরিতে নির্বাচিত হয়েছেন বার কাউন্সিলের বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আব্দুল বাসেত মজুমদার, অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুয়ায়ুন, অ্যাডভোকেট জহিরুল ইসলাম ( জেড আই) খান পান্না, আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট শ. ম. রেজাউল করিম, অ্যাডভোকেট সৈয়দ রেজাউর রহমান, অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ মোখলেছুর রহমান বাদল।

আর সাধারণ ক্যাটাগরিতে বিএনপিপন্থি প্যানেল থেকে একমাত্র বিজয়ী হলেন সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল এ জে মোহাম্মদ আলী।

অন্যদিকে গ্রুপ-ভিত্তিক সাতটি পদের মধ্যে গ্রুপ–এ থেকে অ্যাডভোকেট কাজী নজিবুল্লাহ হিরু, গ্রুপ বি থেকে মো. কবির উদ্দিন ভূঁইয়া, গ্রুপ ডি থেকে এ. এফ. মো. রুহুল আনাম চৌধুরী, গ্রুপ ই থেকে পারভেজ আলম খান, গ্রুপ এফ থেকে মো. ইয়াহিয়া এবং গ্রুপ জি থেকে রেজাউল করিম মন্টু বিজয় লাভ করেছেন।

আর গ্রুপ সি থেকে বিএনপি সমর্থিত অ্যাডভোকেট মো. দেলোয়ার হোসেন চৌধুরী নির্বাচিত হয়েছেন।

বার কাউন্সিলের আইন অনুসারে ১৫ সদস্যের কাউন্সিলে অ্যাটর্নি জেনারেল পদাধিকার বলে চেয়ারম্যান। এছাড়া ১৪ জন সদস্য নির্বাচিত হন। যার মধ্যে সাতজন সাধারণ ক্যাটাগরিতে ও সাতজন আঞ্চলিক ক্যাটাগরিতে নির্বাচিত হন। নির্বাচিত এই ১৪ সদস্য নিজেরা ভোটের মাধ্যমে একজন ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত করেন। নির্বাচিত কমিটির মেয়াদ হলো তিন বছর।

২০১৫ সালে বার নির্বাচনে ১৪ টি পদের বিপরীতে সরকার সমর্থকরা ১১টি পদে জয়লাভ করেছিল। বাকি তিনপদে জয় পেয়েছিল বিএনপি জোট।

এর আগে ২০১২ সালে সাধারণ আসন ও গ্রুপ আসনের ১৪টি সদস্য পদের মধ্যে বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেলের ৯ জন বিজয় লাভ করেছিল।