২৬ মে ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ভারতের কর্নাটকে জিততে চেলেছে বিজেপি

ভারতের কর্নাটকে জিততে চেলেছে বিজেপি

অনলাইন ডেস্ক ॥ রাহুল গাঁধীর হাসি ম্লান করে, কর্নাটকেও উড়তে চলেছে নরেন্দ্র মোদীর ধ্বজা। এই মুহূর্তে গণনার যা গতিপ্রকৃতি, তাতে ম্যাজিক ফিগার টপকে একাই সরকার গড়তে যাচ্ছে বিজেপি। ধরাশায়ী কংগ্রেস।

গণনার শুরুর দিকে কংগ্রেসের ঘাড়ে নিশ্বাস ফেলতে ফেলতে দু’নম্বরে ছিল বিজেপি। মনে হচ্ছিল ত্রিশঙ্কুই হতে যাচ্ছে কর্নাটক বিধানসভা, আর সরকার গড়তে ফ্যাক্টর হচ্ছে দেবগৌড়ার জেডি(এস)।কিন্তু গণনা এগোতেই বদলাতে থাকল ছবিটা।

কংগ্রেস গত বারের থেকে অনেকটা খারাপ ফল করছে। জেডি(এস) গত বারের ফলের আশেপাশেই রয়েছে।

গত ১২ মে ২২৪টি আসনের মধ্যে ২২২টি আসনে লড়াই হয়। সরকার গঠনের জন্য আপাতত ১১২টি আসন দরকার। বিজেপি এই মুহূর্তে ১০০-র বেশি আসনে এগিয়ে।

নির্বাচনে তারাই জিতছে আত্মবিশ্বাসী কংগ্রেস এবং বিজেপি দুই শিবিরই। কিন্তু বেশ কয়েকটি বুথফেরত সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে কোনও দলই সংখ্যাগরিষ্ঠতার ধারে-কাছে নেই। সমীক্ষা বলছে, যে ২২২ টি আসনে ভোট হয়েছে, তার মধ্যে বিজেপি পেতে পারে ৯৭ টি আসন। কংগ্রেসের ঝুলিতে যেতে পারে ৯০ টি আসন। দেবগৌড়ার দল জেডি( এস)- এর প্রাপ্ত আসন হতে পারে ৩১।

ইঙ্গিত সেই ত্রিশঙ্কু-র দিকেই? যদি সেই পথেই নির্বাচনের ফলাফল এগোয়, তা হলে কিন্তু অবশ্যই ‘কিং মেকার’ হয়ে উঠতে পারে জেডিএস। যদিও এই সমীক্ষাকে বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী বি এস ইয়েদুরাপ্পা যেমন গুরুত্ব দিতে রাজি নন, সে রকমই অবস্থান তাঁর যুযুধান প্রতিপক্ষ সিদ্দারামাইয়ার।

কাকে সমর্থন করবে জেডি(এস) কংগ্রেস না বিজেপি? ভোটের প্রচারে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী দেবগৌড়া কিন্তু কংগ্রেস এবং বিজেপির থেকে সমদূরত্ব বজায় রেখেছিলেন। জানিয়ে দিয়েছিলেন, দু’দল সম্পর্কেই জেডি(এস) হতাশ। তাই কাউকে সমর্থন করার প্রশ্নই ওঠে না। কিন্তু ভোট মিটতে না মিটতেই যে কংগ্রেস সম্পর্কে জেডি(এস) অনেক নরম, তা জেডি(এস) মুখপাত্র দানিশ আলির কথা থেকেই স্পষ্ট হয়ে যায়। তবে যা-ই ইঙ্গিত দিক না কেন জেডি(এস), তাদের হাতেই যে কর্নাটকের ‘ভাগ্য’ যে অনেকাংশেই ঝুলে সে কথা মানছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরাও।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা