২০ আগস্ট ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পুঁজিবাজারে পতন থামছে না

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ পুঁজিবাজারে দরপতন যেন কোনভাবেই থামছে না। টানা ১১ কার্যদিবস ধরে দরপতন চলছে পুঁজিবাজারে। বুধবারও মূল্য সূচকের পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে বাজারে। এদিন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) আগের দিনের চেয়ে লেনদেন বেড়েছে।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, বুধবার ডিএসইতে ৩৯৪ কোটি ৮৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে, যা আগের দিনের চেয়ে ৩৯ কোটি ৫৭ লাখ টাকা বেশি। মঙ্গলবার ডিএসইতে ৩৫৫ কোটি ২৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছিল।

এদিন ডিএসইতে মোট লেনদেনে অংশ নিয়েছে ৩৩৯টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৭১টির, কমেছে ২২৩টির। অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৫টি কোম্পানির শেয়ার দর।

সকালে সূচকের ইতিবাচক প্রবণতা দিয়ে লেনদেন শুরু হয়। এক পর্যায়ে বিনিয়োগকারীদের মুনাফা তোলার প্রবণতা দেখা দেয়। শেষ বিকেলে শেয়ার বিক্রির চাপ বাড়ার কারণে সূচকের পতন ঘটে। এই নিয়ে টানা ১১ দিন সূচকের পতন ঘটল। দিনশেষে ডিএসইএক্স বা প্রধান মূল্য সূচক ৩৭ পয়েন্ট কমে ৫ হাজার ৫১১ পয়েন্টে অবস্থান করছে। ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ৯ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে এক হাজার ২৯১ পয়েন্টে। আর ডিএস৩০ সূচক ১৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ২ হাজার ৫৫ পয়েন্টে।

ডিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো : ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড, ইউনাইটেড পাওয়ার, বিএসআরএম লিমিটেড, বেক্সিমকো, স্কয়ার ফার্মা, কুইন সাউথ টেক্সটাইল, গ্রামীণফোন, মুন্নু সিরামিক, ব্র্যাক ব্যাংক ও লিগ্যাসি ফুটওয়ার।

দিনটিতে দর বাড়ার শীর্ষে উঠে এসেছে মুন্নু জুট স্ট্যাফলার্স লিমিটেড। শেয়ারটির দর বেড়েছে ১১০ টাকা ৩ পয়সা বা ৬ দশমিক ২৫ শতাংশ। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

তথ্য অনুযায়ী, বুধবার শেয়ারটি সর্বশেষ এক হাজার ৮৭৫ টাকা ৭০ পয়সা দরে লেনদেন হয়। এদিন কোম্পানিটি ১৩৩ বারে ৪ হাজার ৭৯টি শেয়ার লেনদেন করে। যার বাজারমূল্য ৭৬ লাখ টাকা। এই তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে বাংলাদেশ স্টিল রিরোলিং মিলস লিমিটেড। কোম্পানিটির শেয়ার দর বেড়েছে ৬ টাকা ৪০ পয়সা বা ৫ দশমিক ৯২ শতাংশ। শেয়ারটি সর্বশেষ ১১৪ টাকা ৫০ পয়সা দরে লেনদেন হয়। কোম্পানিটি ৩ হাজার ১১০ বারে ১৫ লাখ ১৫ হাজার ৬৪০টি শেয়ার লেনদেন করে। তালিকার তৃতীয় স্থানে থাকা ইস্টার্ন ব্যাংকের ১ টাকা ৪০ পয়সা বা ৩ দশমিক ৯৩ শতাংশ দর বেড়েছে। কাম্পানিগুলোÑ কুইন সাউথ টেক্সটাইল মিলস, স্ট্যাইল ক্রাফট, বিজিআইসি, ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন এ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি, ফনিক্স ইন্স্যুরেন্স, পাইনিয়র ইন্স্যুরেন্স ও ইস্টার্ন লুব্রিকেন্ট লিমিটেড।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ২৩ কোটি ৫ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। সিএসইর সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১০১ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১৭ হাজার ২৫ পয়েন্টে। সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২৩২টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৪৮টির, কমেছে ১৫৪টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩০টির শেয়ার দর।

সিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো : গ্রামীণ স্কিম-২, বেক্সিমকো, ইউনাইটেড পাওয়ার, নাভানা সিএনজি, বিএসআরএম লিমিটেড, ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড, এডভেন্ট ফার্মা, লাফার্জ হোলসিম, লঙ্কাবাংলা ফাইন্যান্স ও ইবনেসিনা।