২০ আগস্ট ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

প্লে অফের আশা বাঁচিয়ে রাখল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স

  • আইপিএল

ক্রিকইনফো ॥ বৃথা গেল লোকেশ রাহুলের আরেকটি দুর্দান্ত ইনিংস। ৬০ বলে ৯৪ রানের ঝড়ো ব্যাটিং শেষেও দলকে জেতাতে পারেননি এই ওপেনার। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিপক্ষে উত্তেজনাকর ম্যাচটি কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব হেরেছে মাত্র ৩ রানে। এই জয়ে প্লে অফের আশা বাঁচিয়ে রাখল মোস্তাফিজুর রহমানের মুম্বাই। বাকি আছে এক ম্যাচ, কিন্তু তার আগেই ১২ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে উঠে এসেছে তারা। এখন শেষ ম্যাচে ঠিক হবে তাদের প্লে অফে খেলার ভাগ্য। তাদের সমান ১৩ ম্যাচে পাঞ্জাবের ১২ পয়েন্ট হলেও নেট রানরেটে পিছিয়ে থাকায় নেমে গেছে ছয়ে। বুধবারের ম্যাচেও মুম্বাইয়ের একাদশে সুযোগ হয়নি মোস্তাফিজের। তবে দলে সুযোগ পেয়েই বাজিমাত করেছেন কিয়েরন পোলার্ড। তার ঝড়ো হাফসেঞ্চুরিতে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে মুম্বাই স্কোরে জমা করে ১৮৬ রান। সেই লক্ষ্যে খেলতে নেমে পাঞ্জাব ৫ উইকেট হারিয়ে তোলে ১৮৩ রান। লম্বা বিরতি দিয়ে একাদশে জায়গা পাওয়া ক্যারিবিয়ান হার্ডহিটার ব্যাটসম্যান কিয়েরন পোলার্ডের ঝড়েই স্কোরে ১৮৬ রান জমা করে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। ঝড়ো ইনিংসটি পোলার্ড সাজান ৫ চার ও ৩ ছক্কায়। টস হেরে ব্যাটিং

নেমে মুম্বাই শুরুতে এভিন লুইসের (৯) উইকেট হারালেও সূর্যকুমার যাদব ও ঈশান কিশানের ব্যাটে ঘুরে দাঁড়ায়। সূর্যকুমার ১৫ বলে ৩ চার ও ২ ছক্কায় করেন ২৭ রান। আর কিশান আউট হওয়ার আগে ১২ বলে ১ চার ও ২ ছক্কায় খেলেন ২০ রানের ইনিংস। সুবিধা করতে পারেননি অবশ্য অধিনায়ক রোহিত, মাত্র ৬ রান করে ফিরে যান প্যাভিলিয়নে। পান্ডিয়া ২৩ বলে ১ চার ও ২ ছক্কায় করে যান ৩২ রান। পাঞ্জাবের পক্ষে দুর্দান্ত বল করেছেন এ্যান্ড্রু টাই। ৪ ওভারে মাত্র ১৬ রান দিয়ে পেয়েছেন তিনি ৪ উইকেট। অধিনায়ক রবিচন্দ্রন অশ্বিন ১৮ রান খরচায় নেন ২ উইকেট। ১৮৭ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ক্রিস গেইল ১১ বলে ১৮ রান করে ফিরে যান প্যাভিলিয়নে। পাঞ্জাবের আরেক ওপেনার লোকেশ ওয়ান ডাউনে নামা এ্যারন ফিঞ্চকে নিয়ে তৈরি করেন জয়ের ভিত। দ্বিতীয় উইকেটে তারা যোগ করেন ১১১ রান। ৩৫ বলে ৪৬ রান করে ফিঞ্চ আউট হলেও পাঞ্জাবের আশা বাঁচিয়ে রাখেন লোকেশ। মুম্বাই বোলারদের ওপর টর্নেডো বইয়ে দলকে জয়ের দিকে নিয়ে যান তিনি। কিন্তু শেষ করতে পারেননি। ৬০ বলে ৯৪ রান করে আউট হয়ে যান এই ওপেনার। বিধ্বংসী ইনিংসটি লোকেশ সাজান ১০ চার ও ৩ ছক্কায়। এরপর অক্ষর প্যাটেল (১০*) চেষ্টা করলেও হার আর এড়াতে পারেননি। মুম্বাইয়ের সফল বোলার জসপ্রিৎ বুমরাহ মাত্র ১৫ রান খরচায় পান ৩ উইকেট। ২ উইকেট পেয়েছেন মিচেল ম্যাকক্লেনাগন।