১৭ আগস্ট ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কিম-ট্রাম্পের সমঝোতায় লাভবান চীন

কিম-ট্রাম্পের সমঝোতায় লাভবান চীন

অনলাইন ডেস্ক ॥ পরমাণু ইস্যুতে সিঙ্গাপুরে গত ১২ জুন সমঝোতায় পৌঁছেছে উত্তর কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন নিজ নিজ দেশের পক্ষে চুক্তি স্বাক্ষর করেছেন। আর এ চুক্তি স্বাক্ষরের ফলে যুক্তরাষ্ট্রের চেয়ে বেশি লাভবান হচ্ছে চীন। বাণিজ্যিক দৃষ্টিকোণ থেকেই এমন মন্তব্য করেছেন আন্তর্জাতিক বিশ্লেষকরা।

তাদের দাবি, কোরীয় উপদ্বীপে এখন যুদ্ধ ছাড়া আর যাই ঘটবে, তাতেই চীনের লাভ। কারণ হিসেবে তারা বলছেন, কিমের পরমাণু কর্মসূচি বন্ধে মিত্র দেশ হয়েও উত্তর কোরিয়ার ওপর কড়া অর্থনৈতিক অবরোধ আরোপ করতে বাধ্য হয় চীন। ফলে উত্তর কোরিয়ায় দেশটির বাণিজ্যে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হয়। এখন সেই প্রতিবন্ধকতাও উঠে যাবে। পাশাপাশি মিত্র দেশটির ওপর থেকে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের আরোপিত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারেরও আহ্বান জানিয়েছে বেইজিং। অতি সম্প্রতি দুই মাসের কম সময়ের ব্যবধানে কিম দু’বার চীন সফর করেছেন।

উত্তর কোরিয়ার নেতা হিসেবে এটিই ছিল কিমের প্রথম বিদেশ সফর। এই সফরের মধ্য দিয়ে তিনি বুঝিয়েছেন, চীনের নেতা শি জিনপিংয়ের প্রতি তার শ্রদ্ধাবোধ আছে এবং তিনি জিনপিংয়ের কূটনৈতিক মদদ চান। সিঙ্গাপুর সম্মেলনের মাধ্যমে দক্ষিণ কোরিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের থাকা ২৮ হাজার সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা আসবে বলে প্রত্যাশা করেছিল চীন।

এ বিষয়ে কিমের সঙ্গে জিনপিংয়ের কয়েক দফা দর কষাকষিও হয়েছে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। ঐতিহাসিক বৈঠকের পর সংবাদ সম্মেলনে দক্ষিণ কোরিয়া থেকে সেনা কমানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ট্রাম্প। এর মাধ্যমে এশিয়ায় নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে চীনের সোনালি সুযোগ তৈরি হয়েছে। দক্ষিণ কোরিয়ায় মার্কিন সেনা উপস্থিতি যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক শক্তিমত্তার বৃহত্তম পরিচায়ক।

এছাড়া উত্তর কোরিয়ার পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের দরুন তাদের ওপর থেকে সব অবরোধ তুলে নেয়া হয় তাতে চীনের জন্য বৃহত্তম একটি বাজার তৈরি হবে, যা ইরানের ক্ষেত্রেও হয়েছিল। চীন তাদের ৯০ শতাংশ বাণিজ্য উত্তর কোরিয়ায় করে থাকে।

গত বছর দেশটির কয়লা, লোহা, সামুদ্রিক খাদ্য ও শ্রমিকদের ওপর অবরোধ আরোপ করে চীন। এরই মধ্যে উত্তরের সীমান্ত বরাবর তিনটি মুক্ত বাণিজ্যিক এলাকা নির্মাণের পরিকল্পনা করছে বেইজিং। এছাড়া উত্তর কোরিয়ার শ্রমিকদের মাধ্যমে সুবিধা হাসিল করতে চায় চীন। বিশ্বের অন্যতম স্বল্পমূল্যের শ্রমিক পাওয়া যায় উত্তর কোরিয়ায়।