২২ জুন ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পাকিস্তানে ইমরান খানের রাজনৈতিক ভবিষ্যত নিয়ে জোর চর্চা

পাকিস্তানে ইমরান খানের রাজনৈতিক ভবিষ্যত নিয়ে জোর চর্চা

অনলাইন ডেস্ক ॥ প্রাক্তন স্ত্রীর বই প্রকাশিত হওয়ার কথা ভোটের আগেই। তাতে রয়েছে নানা বিতর্কিত বিষয়। এতে তেহরিক-ই-ইনসাফ পার্টির নেতা ইমরান খানের রাজনৈতিক ভবিষ্যতে কতটা প্রভাব পড়বে তা নিয়েই এখন জোর চর্চা পাকিস্তানের নানা শিবিরে। এরই মধ্যে সৌদি আরব সফরের সময়ে এই বই নিয়ে মুখ খুলেছেন খোদ ইমরান। তাঁর বক্তব্য, ‘‘কোনও বই-ই তেহরিক-ই-ইনসাফের জনপ্রিয়তা কমাতে পারবে না।’’

ইন্টারনেটে ‘লিক’ হয়ে যাওয়া রেহামের বইয়ের একটি অংশে বিভিন্ন নারী-পুরুষের সঙ্গে ইমরানের যৌন সম্পর্কের উল্লেখ রয়েছে। রেহামের দাবি, ইমরানের শিবিরই বইয়ের কিছু অংশ প্রকাশ করে তাঁকে চাপে ফেলার চেষ্টা করছে। ইতিমধ্যেই রেহামকে আইনি নোটিস পাঠিয়েছে সংশ্লিষ্ট নানা পক্ষ।

পাকিস্তানে এখন দুর্নীতি মামলার জেরে প্রধানমন্ত্রীর পদ ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন পিএমএলএন দলের নেতা নওয়াজ শরিফ। ভারত ও আমেরিকার সঙ্গে সুসম্পর্ক গড়ার পক্ষে শরিফের সওয়ালও পাক সেনার বিশেষ পছন্দ নয় বলে মনে করেন কূটনীতিকেরা।

এই পরিস্থিতিতে শরিফের পরিবর্ত হিসেবে সেনা ইমরানের পাশে দাঁড়াতে পারে বলে মনে করেন পাকিস্তানের রাজনীতিকদের একাংশ। একটি পাক দৈনিকের সম্পাদক রাজা রুমির মতে, ইমরানের সমর্থকদের বড় অংশ শহুরে মধ্যবিত্ত। পাকিস্তানের এই শ্রেণির অনেকেই রক্ষণশীল। ফলে ইমরানের জীবন সম্পর্কে প্রাক্তন স্ত্রীর এ সব মন্তব্যে তাঁর ক্ষতি হতে পারে। সংবাদমাধ্যম ও সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে চলছে পাল্টা প্রচার। রক্ষণশীল হিসেবে পরিচিত তৃতীয় স্ত্রী বুশরা মানেকার মাধ্যমে ইমরান মোল্লাতন্ত্রের সমর্থন পাওয়ার আশা করছেন বলেও মনে করেন অনেকে।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

নির্বাচিত সংবাদ