২২ জুন ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঝলক

বিমান থেকে পড়ল মলমূত্র

কানাডার ব্রিটিশ কলম্বিয়া প্রদেশের এক নারী অভিযোগ করেছেন উড়ন্ত বিমান থেকে তার গাড়ির খোলা সানরুফ দিয়ে তাদের ওপর মলমূত্র পড়েছে। তিনি বলেন, ওই মলমূত্র তিনি ও তার সন্তানের মুখের ওপর পড়ে এবং দুই চোখে প্রদাহ হয়েছিল। ভ্যানক্যুভারে ১৫০ মাইল পূর্বে ব্রিটিশ কলম্বিয়ার কেলোনায় এই ঘটনা ঘটেছে। সুসান এ্যালান নামের ৫৩ বছর বয়সী ওই নারী বলেন, তিনি ও তার ২১ বছর বয়সী ছেলে ট্রাভিস সুইট এক সঙ্গে লাঞ্চ সেরে ফিরছিলেন। একটি সিগন্যালে অপেক্ষমাণ থাকার সময় হঠাৎ করে গন্ধযুক্ত পদার্থ এ্যালানের গাড়ির ওপর পড়ে। ফলে মলমূত্রে তাদের চেহারা ঢেকে যায় এবং ওই বস্তু অন্য একটি গাড়ির ওপরও পড়ে। এ্যালানের বিশ্বাস এটি একটি বিমান থেকে পড়েছে। কেননা সিগন্যালে থাকার সময় তিনি মাথার ওপর বিমান উড়ে যেতে দেখেছেন। এ্যালান কেলোনা বিমানবন্দরে ফোনও করেছেন। টরন্টোভিত্তিক জাতীয় সংবাদ সংস্থা দ্য কানাডিয়ান প্রেসকে এ্যালান বলেন, আমি শুধু মানুষজনকে এটা জানাতে চাই যে মলমূত্রে চেহারা ঢেকে যাওয়া বিমর্ষকর এবং এটা আর কারও ক্ষেত্রে না ঘটুক। ট্রান্সপোর্ট কানাডা এ ঘটনা নিশ্চিত করেছে। তারা জানিয়েছে, একটি বিমান থেকে হিমায়িত মল পড়ার সম্ভাব্য ঘটনা তারা খতিয়ে দেখছেন। আধুনিক বিমানগুলোতে ভ্যাকুয়াম টয়লেট ব্যবহার করা হয় যা বিমানের বাইরে বায়ুম-লীয় চাপের ওপর নির্ভরশীল। একইসঙ্গে কেবিনে বায়ুচাপ স্বাভাবিক রাখতে একটি ভালভের সাহায্যে বিমানের পেছনের অংশে একটি ট্যাংকের মধ্যে সব বর্জ্য জমা হয়। বিমান যখন কম উচ্চতায় নেমে আসে, তখন একটি ব্লোয়ারের সাহায্যে ট্যাংকের আবর্জনা ফ্লাশ করা হয়। বর্জ্য ভালভটি বিমানের ফুয়েলেজ অংশে অবস্থিত। সেখানে বিমানবন্দরের স্থল ক্রুরা প্রবেশ করেন এবং একটি বিশেষ ব্যবস্থা ব্যবহার করে ওই ট্যাংক পরিষ্কার করেন। কিন্তু মাঝে মাঝে ওই ট্যাংক বা ভালভে ছিদ্র হলে উচ্চ উচ্চতায় বিমানের বাইরে হিমায়িত নীল রাসায়নিক এবং মানব বর্জ্যরে মিশ্রণ কখনও কঠিন বা তরল অবস্থায় মাটিতে পড়ে যায়। -ইয়াহু নিউজ

.

ফেসবুকে নতুন টুল

ফেসবুকে দেখানো কোন বিজ্ঞাপন যদি গ্রাহকের কাছে ভুয়া মনে হয় তবে প্লাটফর্ম থেকে বিজ্ঞাপনটি সরাতে নতুন টুল এনেছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটি। গ্রাহক যদি মনে করেন কোন বিজ্ঞাপনে ভুল তথ্য বা কোন পণ্যকে ভুলভাবে উপস্থাপন করা হচ্ছে তবে ফেসবুকের নতুন টুলের মাধ্যমে এটি পর্যালোচনা করতে পারবেন গ্রাহক। বুধবার এক ব্লগ পোস্টে ফেসবুক জানায়, গ্রাহক কেনাকাটা করেছেন এমন ব্যবসায়ের পর্যালোচনা করতেই টুলটি নক্সা করা হয়েছে। ফেসবুকে বিজ্ঞাপনদাতাদের কাছ থেকে কেনাকাটা করেছেন এমন গ্রাহকের সঙ্গে আমরা কথা বলেছি এবং সবচেয়ে বড় যে দুটি বিরক্তির কথা জানতে পেরেছি তা হলো গ্রাহক এমন বিজ্ঞাপন পছন্দ করেন না যেগুলোর সরবরাহ সময় সঠিক নয় বা পণ্য ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। নতুন টুলটি গ্রাহকের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে জানতে কিছু প্রশ্নের উত্তর চাইবে। সম্ভাব্য নিম্নমানের পণ্য বা সেবা আরও ভালভাবে বুঝতে আমরা গ্রাহক সমাজের কাছ থেকে এই টুলের মাধ্যমে প্রতিক্রিয়া জানবো। বেশি নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া পাওয়া ব্যবসাগুলোকে তাদের সেবা উন্নত করার একটি সুযোগ দেবে ফেসবুক। এরপর অন্য পদক্ষেপ নেবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটি। ফেসবুকের পক্ষ থেকে আরও বলা হয়, যদি সময়ের সঙ্গে গ্রাহক প্রতিক্রিয়ায় উন্নতি না হয় তাহলে আমরা ওই নির্দিষ্ট ব্যবসায়ের বিজ্ঞাপনের সংখ্যা কমিয়ে দেব। আর মানোন্নয়ন না হলে এক পর্যায়ে ওই বিজ্ঞাপনদাতাকে নিষিদ্ধ করে দেয়া হবে। -আইএএনএস

নির্বাচিত সংবাদ