২২ জুন ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নিজ দলের কোচ বন্দনায় ডায়ার

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ফুটবলের জনক বলে খ্যাত ইংল্যান্ডকে অনায়াসেই বিশ্ব ফুটবলের ‘কাগুজে বাঘ’ হিসেবে আখ্যায়িত করা যায়। ২০টি বিশ্বকাপের মধ্যে ১৪টিতে মূলপর্বে অংশ নিয়ে মাত্র দু’বার সেমিফাইনাল খেলতে পেরেছে, আর শিরোপা জিততে পেরেছে মাত্র একবার (১৯৬৬ সালে, পশ্চিম জার্মানিকে ৪-২ গোলে হারিয়ে)। তাও সেই ফাইনালে তাদের জিওফ হার্স্টের একটি গোল ছিল ত্রুটিপূর্ণ। ১৯৯০ আসরে হয়েছিল চতুর্থ। সর্বশেষ ২০১৪ বিশ্বকাপ আসরে তাদের পারফর্মেন্স ছিল জঘন্য। গ্রুপপর্ব থেকেই বিদায়ঘণ্টা বেজে গিয়েছিল তাদের। তবে এবার সেই ব্যর্থতার কথা ভুলে গিয়ে শিরোপা জেতার জন্য দৃঢ়প্রত্যয়ী ‘দ্য থ্রি লায়ন্স’ খ্যাত ইংল্যান্ড। তবে সে জন্য দরকার সুযোগ্য কোচিং। বুদ্ধিদীপ্ত কোচিং ছাড়া দল সফলতা পাবে না। আর সে জন্যই নিজেদের কোচ গ্যারেথ সাউথগ্যাটের প্রতি আস্থা স্থাপন করার পাশাপাশি তার বন্দনায় মেতেছেন এরিক জেরেমি এ্যাডগার ডায়ার।

২৪ বছর বয়সী এবং ৬ ফুট ২ ইঞ্চি উচ্চতার এই ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার ‘এরিক ডায়ার’ নামেই বেশি পরিচিত। ইংল্যান্ডের হয়ে এবার তিনি খেলতে গেছেন রাশিয়া বিশ্বকাপে। ২০১৫ সালে জাতীয় দলে অভিষিক্ত হবার পর এ পর্যন্ত ২৬ ম্যাচ খেলে করেছেন ৩ গোল। ডায়ারের অভিষেকের বছর খানেক পরেই জাতীয় দলের কোচ হন গ্যারেথ, ২০১৬ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর। গ্যারেথের অধীনে ইংল্যান্ড এ পর্যন্ত ১৮ ম্যাচ খেলে এর ১০টিতেই জিতেছে। ৬টিতে ড্র করার বিপরীতে হেরেছে মাত্র ২ ম্যাচে। এ পরিসংখ্যানেই স্পষ্ট- দলটিকে বেশ ভালভাবেই গড়ে নিয়েছেন গ্যারেথ। আর ডায়ার কথা বলেছেন তা নিয়েই, ‘আমি মনে করি কোচ গ্যারেথ আমাদের পথ দেখাবেন। তার ওপর আমাদের পূর্ণ আস্থা আছে। তিনি আসার পর দলের শক্তিমত্তা অনেক বেড়েছে। আমাদের আত্মবিশ্বাসের পারদটাও অনেক উঁচুতে।’

ইংল্যান্ড দল ঘাঁটি গেড়েছে রাশিয়ার যেলেনগরোস্কে। আগামী ১৮ জুন নিজেদের প্রথম গ্রুপ (জি) ম্যাচে তিউনিসিয়ার মুখোমুখি হবে ইংল্যান্ড।

নির্বাচিত সংবাদ