১৯ জুলাই ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নিহত একরামের বাড়ি পরিদর্শনে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন প্রধান

স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার ॥ মাদকবিরোধী অভিযানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে সংঘটিত ঘটনায় নিহত টেকনাফ পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর একরামুল হকের বাড়ি পরিদর্শন করেছেন বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক। রবিবার দুপুরে তিনি নিহত একরামের মা হাফেজা খাতুনের সঙ্গেও দেখা করেছেন।

ওই সময় তিনি বলেন, সরকারের কাছে আমরা বিচারবহির্ভূত এই হত্যাকান্ডের সঠিক তদন্ত ও সুষ্ঠু বিচারের দাবি জানিয়েছি। এ ধরনের বিচারবহির্ভূত হত্যাকান্ড যেন আর সংঘটিত না হয় তারও দাবি জানিয়েছি। কারণ এ ধরনের হত্যাকান্ড স্বাধীন এই মাতৃভূমির জন্য কাম্য নয়। তিনি দুঃখ প্রকাশ করে আরও বলেন, মাদকবিরোধী চলমান এই অভিযানে একের পর এক বিচারবহির্ভূত হত্যাকান্ড ঘটিয়ে কোন দিনও মাদক পাচার প্রতিরোধ ও নির্মূল করা সম্ভব নয়।

জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান বলেন, স্বাধীন এই দেশে কেউ আইনের উর্ধে নয়, তাই আমাদের দাবি- মাদকবিরোধী অভিযানে যেন কোন নিরাপরাধ মানুষ হয়রানির শিকার না হয়। তার পাশাপাশি যারা মাদক পাচারে জড়িত তাদের সঠিক তদন্তের মাধ্যমে আইনের আওতায় নিয়ে এসে কঠোর শাস্তি প্রদান করা হোক। তিনি আবেগ ভরা কণ্ঠে নিহত কাউন্সিলর একরামুল হকের মা হাফেজা খাতুনকে বলেন, সংঘটিত ঘটনার ফাঁস হওয়া অডিও ক্লিপটি শুনে আমরা খুবই মর্মাহত। এই হত্যাকান্ডের সঠিক তদন্ত, সঠিক বিচার পাওয়ার জন্য আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি। পাশাপাশি এ ধরনের ঘটনায় যেন আর কোন নিরহ ব্যক্তির মৃত্যু না হয়, সে দিকটা বিবেচনা করে আমরা সরকারকে বার বার অবহিত করে আসছি। ওই সময় বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের কয়েকজন কর্মকর্তা, টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রবিউল হাসান, টেকনাফ মডেল থানার ওসি রনজিত কুমার বড়ুয়া উপস্থিত ছিলেন। এর আগে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শন করেন।