১৩ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রাসিক নির্বাচনে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় দশ মোবাইল কোর্ট

রাসিক নির্বাচনে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় দশ মোবাইল কোর্ট

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় কঠোর অবস্থানে রয়েছে সরকার। রাসিকের ত্রিশ ওয়ার্ডে নির্বাচনী আচরণবিধি রক্ষায় এবং অপরাধ প্রতিরোধে সার্বক্ষণিকভাবে মোবাইল কোর্ট পরিচালনায় ইতোমধ্যে দশজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। নির্বাচনে প্রতীক বরাদ্দের দিন মঙ্গলবার থেকে তারা কাজ শুরু করেছেন। নির্বাচন পরবর্তী ১ আগস্ট পর্যন্ত তারা মাঠে দায়িত্ব পালন করবেন।

রাজশাহী জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এসএম আব্দুল কাদের স্বাক্ষরিত এক নির্বাহী আদেশে বলা হয়েছে, নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের স্মারকের পরিপ্রেক্ষিতে মোবাইল কোর্ট আইন, ২০০৯ এর আওতায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষা ও অপরাধ প্রতিরোধ কার্যক্রম এবং উক্ত আইনের আওতায় তফসিলে বর্ণিত স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) আইন, ২০০৯ অনুযায়ী রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মোবাইল কোর্ট পরিচালনার জন্য দশ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে নিয়োগ দেয়া হলো। এর মধ্যে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এমএম সামিরুল ইসলাম ১৩, ১৪ ও ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে, সহকারী কমিশনার মুহাম্মদ ইসমাঈল ১৬, ১৭ ও ১৮ নম্বর ওয়ার্ডে, জান্নাত আরা তিথি ৯, ১১ ও ১২, রাহিমা সুলতানা বুশরা ২৫, ২৮ ও ২৯, উম্মে তাবাস্সুম ২২, ২৩ ও ২৪, শারমিন আক্তার ৩, ৫ ও ৬, তাসনীম জাহান, ১, ২ ও ৪, মো. ইকবাল হোসেন ১৯, ২০ ও ২১, মামনুন আহমেদ অনীক ২৬, ২৭ ও ৩০ এবং সুকান্ত কুমার সাহা ৭, ৮ ও ১০ নম্বর ওয়ার্ডে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করবেন।

প্রার্থীদের আনুষ্ঠানিকভাবে প্রচারণা শুরুর দিন থেকে মোবাইল কোর্ট তার কার্যক্রম শুরু করেছে। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা দায়িত্বপ্রাপ্ত এলাকার আইনশৃঙ্খলার খোঁজ-খবর নিতে পাড়ামহল্লায় যাচ্ছেন। কোন এলাকায় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির যদি বিঘœ ঘটে কিংবা কেউ নির্বাচনের পরিবেশ বিনষ্ট করে তাহলে যে কেউ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে সরাসরি অভিযোগ করতে পারবেন। এছাড়াও পুলিশ এবং নির্বাচন অফিসেও অভিযোগ করা যাবে। আগামী ১ আগস্ট পর্যন্ত এই মোবাইল কোর্ট বলবৎ থাকবে বলে নির্বাহী আদেশে বলা হয়েছে।