১২ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রিয়াল ছেড়ে জুভেন্টাসে রোনাল্ডো

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ তাহলে কি রং হারিয়ে ফেলতে যাচ্ছে বিশ্ব ফুটবলের সবচেয়ে আকর্ষণীয় লীগ ‘লা লিগা’? দর্শকসংখ্যা কি কমে যাবে এই লীগের? প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বী না থাকায় কি এই লীগে খেলে আর মজা পাবেন লিওনেল মেসি? বার্সেলোনা-রিয়াল মাদ্রিদের ঝাঁজালো ‘এল ক্লাসিকো’ কী আগের মতো সেভাবে মনোযোগ-আগ্রহ নিয়ে দেখবে ফুটবলপ্রেমীরা? এতগুলো প্রশ্ন কিন্তু একজনকে ঘিরেই, তিনি ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। রাশিয়া বিশ্বকাপেই ছড়িয়ে পড়েছিল গুজবটা। অবশেষে দেখা যাচ্ছে, ‘যা রটে, তার কিছুটাও বটে!’ সেই গুজবই শেষ পর্যন্ত সত্যি হলো, স্প্যানিশ ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্টাসে যোগ দিয়েছেন এই পর্তুগীজ তারকা ফরোয়ার্ড। এর ফলে আগামী মৌসুম থেকে ‘সি আর সেভেন’কে আর দেখা যাবে না স্পেনের ফুটবলে। তার নাম লেখা ট্রেডমার্ক ৭ নম্বর জার্সিও বিক্রি শুরু হয়ে গেছে। তাকে নিয়ে চ্যাম্পিন্স লীগ জেতার স্বপ্নও দেখতে শুরু করেছে তুরিনের এ ক্লাবটি।

জানা গেছেÑ ১০০ মিলিয়ন ইউরোতে জুভেন্টাসে যোগ দিয়েছেন ৬ ফুট ১ ইঞ্চির অধিকারী এবং ৩৩ বছর বয়সী রোনাল্ডো। অঙ্কটা ১০৫-এ গিয়েও ঠেকতে পারে। আরও চাঞ্চল্যকর তথ্যÑ ২০০৯ সালে রিয়ালে যোগ দেয়া রোনাল্ডোর অনুরোধেই নাকি জুভেন্টাসের প্রস্তাবে রাজি হয়েছে রিয়াল।

বিদায়বেলায় আবেগী এক খোলা চিঠি লিখেছেন রোনাল্ডো, ‘মাদ্রিদ শহর ও রিয়াল মাদ্রিদে কাটিয়ে যাওয়া এ বছরগুলো সম্ভবত আমার জীবনের সবচেয়ে আনন্দময় সময়। এই ক্লাব, ক্লাবের সমর্থক, এই শহরের প্রতি ভীষণ কৃতজ্ঞ। আমাকে তারা যেভাবে ভালবেসেছে, আমার প্রতি যে আবেগ দেখিয়েছে, সবাইকে শুধুই ধন্যবাদ দিতে পারি।’

রিয়ালের হয়ে সবধরনের ফুটবলে ৪৩৮ ম্যাচে ৪৫০ গোলের মালিক আরও যোগ করেন, ‘সব সমর্থক ও স্প্যানিশ ফুটবলের প্রতি আবারও অসংখ্য ধন্যবাদ। এ নয় বছরে আমি বিশ্বের সেরা কিছু খেলোয়াড়ের বিপক্ষেও খেলেছি। আমি তাদের প্রতি আমার সম্মান ও শ্রদ্ধা জানাচ্ছি।’ সবশেষে রিয়ালের হয়ে ১৬টি শিরোপা জেতা রোনাল্ডো লেখেন, ‘অনেক দীর্ঘসময় নিয়ে ভেবেছি এবং এ সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে জীবনে নতুন কিছু শুরু করার সময় এসেছে। আমি এ জার্সি ছেড়ে যাচ্ছি ঠিকই। কিন্তু যেখানেই থাকি না কেন, এই ক্লাব ও সান্তিয়াগো বার্নাব্যু আমার জীবনের অংশ হয়ে থাকবে। সবাইকে ধন্যবাদ এবং এ স্টেডিয়ামে নয় বছর আগে প্রথমবার যেমন বলেছিলাম, হালা মাদ্রিদ!’

রোনাল্ডোর বিদায়ে আবেগে আপ্লুত হয়ে রিয়ালের অধিনায়ক সার্জিও রামোস এক টুইট বার্তায় বলেন, ‘ক্রিশ্চিয়ানো তোমার গোল, পরিসংখ্যান এবং সব অর্জন কাউকে বলে বুঝানোর দরকার নেই। রিয়াল মাদ্রিদের ইতিহাসে তুমি একটি বিশেষ স্থান অর্জন করেছ। মাদ্রিদিস্তা হিসেবে তোমাকে সবসময় স্মরণ করব। তোমার সঙ্গে খেলতে পেরে আনন্দিত। তোমার জন্য শুভকামনা।’

এদিকে রোনাল্ডোর রিয়াল ছেড়ে জুভেন্টাসে যাওয়া প্রসঙ্গে রিয়াল মাদ্রিদ ১৯২ শব্দের একটি বিবৃতি দিয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, ‘রিয়াল মাদ্রিদ সবাইকে জানাতে চায়, ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর অনুরোধে জুভেন্টাসের সঙ্গে দলবদলের সিদ্ধান্তে সম্মত হয়েছি। আজ রিয়াল মাদ্রিদ এমন খেলোয়াড়ের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করতে চায়, যিনি নিজেকে বিশ্বের সেরা বলে প্রমাণ করেছেন এবং এটি আমাদের ক্লাব এবং বিশ্ব ফুটবল ইতিহাসে অন্যতম উজ্জ্বল এক যুগের জন্ম দিয়েছে। এ নয় বছরে অসংখ্য শিরোপা, ট্রফি এবং জয়ই পাননি রোনাল্ডো, তিনি আত্মনিবেদন, পরিশ্রম, দায়িত্বশীলতা, প্রতিভা এবং উন্নতির উদাহরণ।’ রিয়ালের জার্সিতে রোনাল্ডো সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা। জিতেছেন চারটি চ্যাম্পিয়ন্স লীগ, দুটি লা লিগা, দুটি কোপা দেল রে, দুটি স্প্যানিশ সুপার কাপ, তিনটি ইউরোপিয়ান সুপার কাপ এবং তিনটি ক্লাব বিশ্বকাপ। ব্যক্তিগতভাবে জিতেছেন চারটি ব্যালন ডি’অর, তিনটি পিচিচি ট্রফি, চারটি ইউরোপিয়ান গোল্ডেন সু।

এদিকে রোনাল্ডো জুভেন্টাসে যোগ দেয়ার খবরে খুশি হলেও আক্ষেপে পুড়েছেন ক্লাবটির সাবেক কিংবদন্তি গোলরক্ষক জিয়ানলুইজি বুফন। ক’দিন আগেই জুভেন্টাস ছেড়ে যোগ দিয়েছে ফরাসী ক্লাব পিএসজিতে। জুভেন্টাসে দেড় যুগ খেলে অসংখ্য শিরোপা জিতলেও কখনই চ্যাম্পিয়ন্স লীগ জেতেননি তিনি। এখন আফসোস করছেন এই ভেবে, ‘এখন জুভেন্টাসে থাকলে রোনাল্ডোর সঙ্গে জুটি বেঁধে খেলে চ্যাম্পিয়ন্স লীগ জেতার সুযোগ থাকতো।’ এখন দেখার বিষয়, রোনাল্ডোর জুভেন্টাস অধ্যায়টা কেমন হয়।

নির্বাচিত সংবাদ