১৬ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

তুরিন আফরোজের বিরুদ্ধে তদন্ত শিগগিরি শেষ হবে : আইনমন্ত্রী

তুরিন আফরোজের বিরুদ্ধে তদন্ত  শিগগিরি শেষ হবে  :  আইনমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার ॥ প্রসিকিউটর তুরিন আফরোজের বিরুদ্ধে যে তদন্ত কমিটি কাজ করছে তা শিগগিরি শেষ হবে বলে আশা করছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।বৃহস্পতিবার দুপুরে সচিবালয়ে কমনওয়েলথ মহাসচিব প্রেট্টিকা স্কটল্যান্ড এর সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।এ সময় আইনমন্ত্রী বলেন, ‘তদন্ত চলাকালীন অবস্থায় যদি কথা বলি, তাহলে তদন্ত প্রভাবিত হতে পারে। সেজন্য এ ব্যাপারে কোনো কথা বলবো না। তদন্ত কবে নাগাদ শেষ হবে, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমার মনে হয় বেশীদিন লাগবে না।’

কমনওয়েলথ মহাসচিবের সঙ্গে বৈঠকের বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, আমরা দুজনই একমত হয়েছি, কমনওয়েলথ এর ৫৩ টা দেশ একসাথে কথা বললে পৃথিবীতে আমরা একটা শক্ত অবস্থান তৈরি করতে পারবো। সেটা নিয়ে আলাপ-আলোচনা করেছি। আমাদের বিচার বিভাগ নিয়ে আলাপ-আলোচনা করেছি। সাম্প্রতিক ঘটনা নিয়েও আলাপ-আলোচনা করেছি। আইনের বিস্তার লাভ, ডিজিটাইজেশনসহ সবকিছু নিয়ে আলাপ-আলোচনা করেছি।

উনি (প্রেট্রিকা স্কটল্যান্ড) আমাদের দেশের বিচার বিভাগের স্বাধীনতা এবং বিচার বিভাগের কর্মকান্ডে অত্যন্ত সন্তুষ্ট। উনি অনুরোধ করেছেন, শেখ হাসিনার সরকার বিচার বিভাগের উন্নয়নে, দেশের উন্নয়নে যেভাবে এগিয়েছেন এটা যেন কমনওয়েলথ এর বাকি যে দেশগুলি আছে, তাদের সাথে শেয়ার করি। সেটার ব্যবস্থা উনি করার চেষ্টা করবেন, বলেন আইনমন্ত্রী।

গত নবেম্বরে মানবতাবিরোধী আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর তুরিন আফরোজের বিরুদ্ধে তিনটি অভিযোগ ওঠে। সেগুলো হলো আসামি ওয়াহিদুল হকের সঙ্গে গোপন বৈঠক, মামলার নথি তার কাছে হস্তান্তর ও মামলার মেরিট নিয়ে কথা বলা।অভিযোগের প্রমাণ ও অডিও রেকর্ড আইন মন্ত্রণালয়ের কাছে হস্তান্তর করেন ট্রাইব্যুনালের চিফ প্রসিকিউটর গোলাম আরিপ টিপু।প্রাথমিকভাবে অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় তুরিন আফরোজকে ট্রাইব্যুনালের সব মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

ওয়াহিদুল হককে গ্রেফতারের আগে গত নবেম্বর তুরিন আফরোজ প্রথমে তাকে টেলিফোন করে দেখা করার সময় চান।

এরপর একটি হোটেলে ওয়াহিদুল হকের সঙ্গে গোপন বৈঠক করেন তিনি।এ সংক্রান্ত দুটি অডিও-রেকর্ড পুলিশের মাধ্যমে তদন্ত সংস্থার হাতে এলে তা চিফ প্রসিকিউটরকে হস্তান্তর করা হয়।অডিও-রেকর্ড দুটি ওয়াহিদুল হক গ্রেফতার হওয়ার পর তার মোবাইল ফোনে পাওয়া যায়।