১৫ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আজ সিলেটের দুই কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সিলেট সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনে স্থগিত দুটি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ করা হচ্ছে আজ শনিবার। ইসি জানিয়েছে সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ করা হবে এবং বিরতি ছাড়াই বেলা চারটা পর্যন্ত চলবে। কমিশনের পক্ষ থেকে স্থগিত কেন্দ্রে সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। দুটি কেন্দ্রে মেয়র পদ ছাড়াও কাউন্সিলর পদে ভোট গ্রহণ করা হবে। ইসি জানিয়েছে স্থগিত দুই কেন্দ্র ছাড়াও সিটির সংরক্ষিত ৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে দুই প্রার্থী সমভোট পাওয়ায় এই ওয়ার্ডের ৯২ থেকে ১০৫ নম্বর পর্যন্ত ১৪ ভোট কেন্দ্রে নতুন করে ভোটগ্রহণ করা হচ্ছে আজ।

গত ৩০ জুলাই রাজশাহী বরিশাল সিটির পাশাপাশি সিলেট সিটি কর্পোরেশনে ভোটগ্রহণ করা হয়। ১৩৪ ভোট কেন্দ্রের মধ্যে অনিয়মের কারণে দুটি ভোট কেন্দ্রের নির্বাচন স্থগিত করে দেয় কমিশন। কিন্তু মেয়র পদে দুই প্রার্থীর ভোটের ব্যবধানের চেয়ে স্থগিত কেন্দ্রের ভোট বেশি হওয়ায় ফল ঘোষণাও স্থগিত রাখা হয়। শনিবার দুই কেন্দ্রে ভোটগ্রহণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

সিলেটে মেয়র পদে ৭ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয় বিএনপির প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরীর সঙ্গে আওয়ামী লীগ প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের হয়। ১৩২টি কেন্দ্রের মধ্যে বিএনপি মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ৯০ হাজার ৪৯৬ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরান নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৮৫ হাজার ৮৭০ ভোট। আরিফুল হক চৌধুরী ৪ হাজার ৬২৬ ভোটে এগিয়ে রয়েছেন। অন্যদিকে স্থগিত হওয়া দুটি কেন্দ্রের মোট ভোটার ৪ হাজার ৭৮৭। ভোটের এই ব্যবধানের কারণে আজ নতুন করে ভোট নেয়া হচ্ছে। ইসি জানিয়েছে, নগরীর ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের গাজী বোরহান উদ্দিন গরম দেয়ান সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং ২৭নং ওয়ার্ডের হবিনন্দি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে আজ ভোট নেয়া হবে। এর মধ্যে দুটির প্রথম কেন্দ্রের ভোটার সংখ্যা ২ হাজার ২২১ আর দ্বিতীয়টির ভোটার সংখ্যা ২৫৬৬ জন।

এদিকে আজ নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপি প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী গত বৃহস্পতিবার প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নুরুল হুদার সঙ্গে সাক্ষাত করে দুটি কেন্দ্রে সুষ্ঠুভাবে ভোট গ্রহণের আহ্বান জানিয়েছেন। এ সময় তিনি কেন্দ্র দুটিতে মৃত ভোটারের তালিকা এবং প্রবাসী ভোটারের তালিকা সিইসির কাছে হস্তান্তর করেন। তিনি বলেন, দুটি স্থগিত কেন্দ্রে মোট ভোটার রয়েছে ৪ হাজার ৭৮৭। এর মধ্যে মৃত ভোটার রয়েছে ১১৮ জন। আর প্রবাসে অবস্থান করছেন ১৮০ জন। তিনজন ভোটার এলাকা ছেড়ে চলে গেছেন।

এদিকে মেয়র পদে আরিফুল হক চৌধুরী এগিয়ে থাকায় বিজয় ঘোষণা করা এখন সময়ের বিষয় মাত্র। কারণ প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের চেয়ে বিএনপি প্রার্থী ৪ হাজার ৬২৬ ভোট বেশি পেয়ে এগিয়ে আছেন। এই সিটিতে মেয়র পদে আরিফুলের জয়ের জন্য প্রয়োজন মাত্র ১৬১ ভোট। অপর দিকে আওয়ামী লীগ প্রার্থীকে জিততে হলে স্থগিত ২ কেন্দ্রের মোট ভোটের প্রায় সবই তার বাক্সে পড়তে হবে। যা মোট ভোটের শতকরা প্রায় ১শ’ ভাগের কাছাকাছি।

তবে আরিফুলের হিসাব মতে, মৃত ভোট এবং প্রবাসী ভোট বাদ দিয়ে যদি বাকি ভোট আওয়ামী লীগ প্রার্থী বাক্সে যায় তাহলেও তিনি জিততে পারবেন না। এই হিসেবে বলা যায় সিলেট সিটিতে আরিফুলের মেয়র হিসেবে ঘোষণা এখন সময়ের বিষয় মাত্র।