২১ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

একশ কোটি ক্লাবের ধারণা স্রেফ আহাম্মকি ॥ জন আব্রাহাম

একশ কোটি ক্লাবের ধারণা স্রেফ আহাম্মকি ॥  জন আব্রাহাম

অনলাইন ডেস্ক ॥ বেশ কয়েক বছর ধরে চলচ্চিত্রে সাফল্য শব্দটির মানেই পাল্টে গেছে। একটি ছবির সাফল্য মূল্যায়নে এখন বিবেচিত হয় কয়দিন সিনেমাটি চলল, বক্স অফিসে কত কোটি অতিক্রম করল। আর একশ কোটির ঘরে গেলেই ছবিটি সফল বলে চালিয়ে দিচ্ছেন প্রযোজক-পরিচালকেরা। আর এ সব করে দর্শকদের ঠকানো হচ্ছে। এসব কথা বললেন বলিউড তারকা জন আব্রাহাম!

আর কিছুদিন পরই মুক্তি পারে জন আব্রাহামের ‘সত্যমেভ জয়তে’। তিনি অভিযোগ করেছেন, তিন দিনে কোনো চলচ্চিত্র একশ কোটি টাকা আয় করলেই সেটি সফল, এটা পুরোপুরি মিথ্যা। তিনি বলেছেন, ‘দর্শকদের সঙ্গে প্রতারণা ছাড়া এসব পরিচালকের আর কোনো অর্জন নেই।

জন বলেন, ‘আমি বলতে চাই চলচ্চিত্রের সাফল্য নিয়ে ধারণা পরিবর্তন করা জরুরি। প্রথম তিন দিনের দিকে না তাকিয়ে দেখা উচিত কতদিন ছবিটি চলল এবং ছবিটির গ্রহণযোগ্যতা কেমন, এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’

এ ধরনের সংখ্যাতাত্ত্বিক মূল্যায়ন কীভাবে ইন্ডাস্ট্রি ও দর্শকদের ওপর প্রভাব ফেলে? জন বলেন, ‘মানুষ আসেন, ছবি দেখেন; কিন্তু ওই একই ছবির কী হয়? ছবিটি ব্যর্থ হয়, দর্শক প্রতারিত হন এবং প্রযোজক সাকসেস পার্টি করেন, বাস্তবতা হলো সত্যিই তা সফল নয়। প্রযোজক সত্যিই দর্শকদের সাথে প্রতারণা করেন এবং অভিনেতাকে এই বলে সন্তুষ্ট করেন যে, আমি নিশ্চিত তুমি ভালো করেছ। কিন্তু সত্যিটা হল, সবাই ব্যর্থ হয়েছেন।’

বলিউড হাঙ্গামা-কে দেওয়া এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে জন আব্রাহাম বলেন, ‘একশ কোটি ক্লাবের ধারণা স্রেফ আহাম্মকি। আমি মনে করি, ৫০ দিন, ৭৫ দিনের ধারণা শেষ হওয়া দরকার। আমাদের চলচ্চিত্র সংস্কৃতিতে ফেরা দরকার এবং দর্শকদের হলে যাওয়া ও ছবি দেখানো দরকার। ছবি মুক্তির তিন দিনের মধ্যে একশ কোটি আয়ের ধারণা খুব বাজে। মিথ্যে করে এই সংখ্যাগুলো দর্শকদের বলা হয়, বাজে ছবিও একশ কোটির ঘরে; কারণ তাঁরা পিভিআর জুহু অথবা পিভিআর সাকেটে মুক্তি দেন, যেখানে টিকিটের মূল্য না কি পাঁচ হাজার টাকা।’

জন আব্রাহাম নিজেও প্রযোজক। তাঁকে মিলাপ জাবেরি পরিচালিত ‘সত্যমেভ জয়তে’ ছবিতে মনোজ বাজপেয়ি ও আয়শা শর্মার বিপরীতে দেখা যাবে। আগামী ১৫ আগস্ট ছবিটি মুক্তি পাবে।