২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

২১ বছর বয়সের আগেই চালকের লাইসেন্স !

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথিরিটি বিআরটিএর নিয়মানুযায়ী ২১ বছরের আগে কোন চালকের লাইসেন্স নয়। পাশাপাশি অপেশাদার চালক পেশাদার হিসেবে গাড়ি চালানো গুরুতর অপরাধ। অপ্রাপ্তবয়স্ক কোন চালক রাস্তায় গাড়ি নিয়ে নামলে তা অপরাধ হিসেবে গণ্য হবে। কোন বাসের নেই রুট পারমিট। পাওয়া যাচ্ছে না চালকের লাইসেন্স ও গাড়ির প্রয়োজনীয় কাগজপত্র।

রাজধানীজুড়ে গণপরিবহনের চিত্র ঠিক একই রকম। পুলিশ ও মালিক সমিতির যৌথ অভিযানে এমন চিত্র ওঠে এসেছে। মঙ্গলবার গোটা অভিযানে অপ্রাপ্তবয়স্ক চালক বেশি পাওয়া গেছে। অপেশাদার চালকের বাস চালানোর কারণে সড়ক দুর্ঘটনা বেশি হচ্ছে বলেও মনে করেন পরিবহন সংশ্লিষ্টরা।

বাস্তবতা হলো মালিক সমিতির হুঁশিয়ারির পরও রাজধানীতে চুক্তি ভিক্তিক ও হেলপার দিয়ে বাস চালানো বন্ধ হয়নি। সেইসঙ্গে ফিটনেসবিহীন যানবাহন চলছে দেদার। কাগজপত্র ছাড়াও গাড়ি চালানোর অভিযোগ মিলেছে। মঙ্গলবারও পরিবহন মালিক সমিতি ও পুলিশি তৎপরতা বৃদ্ধি পাওয়ায় রাজধানীতে বাস চলাচল কম ছিল।

পুলিশ ও মালিক সমিতির যৌথ অভিযান ॥ প্রথমে ট্রাফিক সপ্তাহ সাতদিন থাকলেও পরে তা দশ দিন করা হয়। এ দিনেও ট্রাফিক পুলিশের পাশাপাশি বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি চালকদের লাইসেন্স পরীক্ষা করে। মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর মানিক মিয়া এভিনিউতে ভিআইপি পরিবহনের একটি বাস থামিয়ে চালকের লাইসেন্স চেক করেন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্লাহ।

গাড়িচালক রবিনকে বাস থেকে নামালেন এনায়েত উল্লাহ। পাশেই দাঁড়িয়ে ছিলেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ট্রাফিক সার্জেন্ট ফরহাদ। তাকে লাইসেন্স যাচাই করতে বললেন। সার্জেন্ট লাইসেন্স যাচাই করে দেখলেন এটি অপেশাদার এবং হালকা যান (মোটরসাইকেল, প্রাইভেটকার, অটোরিক্সা) চালানোর লাইসেন্স। পরে তাকে মামলা দেন সার্জেন্ট।

এনায়েত উল্লাহ বলেন, ‘ওর বয়স ২১ কেমনে হয়? দেখলেই বোঝা যায় ওর ১৫-১৬ বছর। অথচ পেশাদার লাইসেন্স পেতে ২১ বছর হতে হয়। এরা কীভাবে লাইসেন্স পাচ্ছে? কেন ওদের লাইসেন্স দেয়া হচ্ছে?’ জবাবে সার্জেন্ট ফরহাদ বলেন, ‘লাইসেন্স তো বিআরটিএ দেয়।’

এর আগে দুপুর সোয়া ১২টায় মানিক মিয়া এভিনিউ পশ্চিম বাসস্ট্যান্ডে অবস্থান নেয় ও অন্যান্য বাস মালিকরা। এছাড়াও রাজধানীর সায়েদাবাদ, মহাখালী বাস টার্মিনাল ও মিরপুরে বাস মালিকরা যানবাহন ও লাইসেন্স যাচাই-বাছাই করেন।

আজ থেকে ট্রেনের ফিরতি টিকেট ॥ পবিত্র ঈদ-উল আজহা পরবর্তী ট্রেনের অগ্রিম ফিরতি টিকেট বিক্রি শুরু হচ্ছে আজ বুধবার থেকে। এর আগে গত ৮ আগস্ট শুরু হয়েছিল ঈদের অগ্রিম টিকেট বিক্রি। ফিরতি টিকেট বিক্রি বুধবার শুরু হয়ে চলবে ১৯ আগস্ট পর্যন্ত। রাজশাহী, খুলনা, রংপুর, দিনাজপুর ও লালমনিহাট স্টেশনে সকাল ৮টা থেকে বিশেষ ব্যবস্থাপনায় এ টিকেট দেয়া হবে।

বুধবার পাওয়া যাবে ২৪ আগস্টের টিকেট। একইভাবে ১৬, ১৭, ১৮, ১৯ আগস্ট যথাক্রমে পাওয়া যাবে ২৫, ২৬, ২৭, ২৮ আগস্টের টিকেট। বরাবরের মতো এবারও মোট টিকেটের ৬৫ শতাংশ কাউন্টার থেকে দেয়া হবে। বাকি ৩৫ শতাংশের মধ্যে ২৫ শতাংশ অনলাইন ও মোবাইলে। ৫ শতাংশ ভিআইপি এবং রেল কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য বরাদ্দ রয়েছে ৫ শতাংশ।

ঈদ যাত্রায় ৯ জোড়া বিশেষ ট্রেন ॥ এবারে ঈদ যাত্রায় ৯ জোড়া বিশেষ ট্রেন চলাচল করবে। এর মধ্যে রয়েছে- দেওয়ানগঞ্জ স্পেশাল : ঢাকা-দেওয়ানগঞ্জ- ঢাকা (ঈদের আগে ১৮ থেকে ২১ আগস্ট এ চারদিন এবং পরে ২৩ থেকে ২৯ আগস্ট সাতদিন চলবে)।

চাঁদপুর স্পেশাল-১ ॥ চট্টগ্রাম-চাঁদপুর-চট্টগ্রাম (ঈদের আগে ১৮ থেকে ২১ আগস্ট চারদিন এবং ঈদের পরে ২৪ থেকে ৩০ আগস্ট সাতদিন চলবে)।

চাঁদপুর স্পেশাল ২ ॥ চট্টগ্রাম-চাঁদপুর-চট্টগ্রাম (ঈদের আগে ১৮ থেকে ২১ আগস্ট চারদিন এবং ঈদের পরে ২৪ থেকে ৩০ আগস্ট সাতদিন চলবে)। রাজশাহী স্পেশাল ॥ রাজশাহী-ঢাকা-রাজশাহী (ঈদের আগে ১৮ থেকে ২০ আগস্ট তিনদিন এবং ঈদের পরে ২৪ থেকে ৩০ আগস্ট সাতদিন চলাচল করবে)।

দিনাজপুর স্পেশাল ॥ দিনাজপুর-ঢাকা-দিনাজপুর (ঈদের আগে ১৮ থেকে ২০ আগস্ট তিনদিন এবং ঈদের পরে ২৪ থেকে ৩০ আগস্ট সাতদিন চলাচল করবে)।

লালমনি স্পেশাল ॥ ঢাকা-লালমনিরহাট-ঢাকা (ঈদের আগে ১৮ থেকে ২১ আগস্ট চারদিন এবং পরে ২৪ থেকে ৩০ আগস্ট সাতদিন চলবে)।

খুলনা এক্সপ্রেস ॥ খুলনা-ঢাকা-খুলনা (ঈদের আগে ২১ আগস্ট একদিন চলবে)।

শোলাকিয়া স্পেশাল-১ ॥ ভৈরব-কিশোরগঞ্জ-ভৈরব রুটে ঈদের দিন চলাচল করবে। শোলাকিয়া স্পেশাল-২ ॥ ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ-ময়মনসিংহ রুটে ঈদের দিন চলবে।

ট্রাফিক সপ্তাহের সফলতা ॥ গত ৫ আগস্ট থেকে শুরু হওয়া ট্রাফিক সপ্তাহে সোমবার ৯তম দিন। অভিযানে ফিটনেস, ড্রাইভিং লাইসেন্স ইত্যাদি প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ব্যতীত এবং অন্যান্য আইন অমান্যকারী যানবাহনকে আইনের আওতায় এনে আটক ও জরিমানা করা হয়েছে।