২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মুক্তিযোদ্ধা কোটা নিয়ে আজই মত জানাবেন অ্যাটর্নি জেনারেল

মুক্তিযোদ্ধা কোটা নিয়ে আজই মত জানাবেন অ্যাটর্নি জেনারেল

অনলাইন রিপোর্টার ॥ মুক্তিযোদ্ধা কোটা নিয়ে আজ সোমবার মতামত জানাবেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। এরই মধ্যে তিনি এ বিষয়ে নিজের মতামত প্রস্তুতের কাজ প্রায় শেষ করে ফেলেছেন। অ্যাটর্নি জেনারেলের মুক্তিযোদ্ধা কোটা নিয়ে সরকারের জানতে চাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে তিনি মতামত চূড়ান্ত করছেন। এরপর তিনি এটি পাঠিয়ে দেবেন কোটা সংশ্লিষ্ট কমিটির কাছে।

আজ সোমবার দুপুরে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। তবে তিনি কী মতামত দিয়েছেন সে বিষয়ে কিছুই জানাননি।

মাহবুবে আলম বলেন, ‘মতামত প্রস্তুতি প্রায় শেষ পর্যায়ে। পুরোপুরি শেষ হলে তা সরাসরি মন্ত্রিপরিষদে পাঠানো হবে। মুক্তিযোদ্ধা কোটা প্রসঙ্গে রায়ের আলোকে মতামত দেবো। কিন্তু কোটার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে সরকার। তাই মতামতের বিষয়বস্তু নিয়ে গণমাধ্যমে আমি কোনও মন্তব্য করবো না।’

এর আগে গত সপ্তাহে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের কাছে মুক্তিযোদ্ধা কোটার বিষয়ে আদালতের রায় সংশ্লিষ্ট বিষয়ে মতামত জানতে চেয়ে চিঠি দেয় কোটা সংশ্লিষ্ট কমিটি। এ বিষয়ে গত ১৭ আগস্ট তিনি বলেছিলেন, ‘আমি দুই-তিন দিন আগে চিঠি পেয়েছি। চিঠিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটা নিয়ে আমার মতামত চাওয়া হয়েছে। সোমবারের মধ্যে আমার মতামত দেবো।’

প্রসঙ্গত, গত ১২ আগস্ট মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম জানান, সরকারি চাকরিতে মেধাকে প্রাধান্য দিয়ে কোটা প্রথা যতটা সম্ভব তুলে দেওয়ার সুপারিশ করছে এ সংক্রান্ত কমিটি। তবে ৩০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা কোটার ব্যাপারে আদালতের রায় থাকায় এ ব্যাপারে সুপ্রিম কোর্টের মতামত চাইবে সরকার।

মুক্তিযোদ্ধাদের কোটা সংরক্ষণ বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টের পর্যবেক্ষণ এ সংক্রান্ত কমিটি পুরোপুরি বুঝতে না পারার কারণেই এ বিষয়ে আদালতের মতামত চাওয়া হবে। যদি কোর্ট এটাকেও বাদ দিয়ে দেন তাহলে কোটা থাকবে না। আর কোর্ট যদি বলেন ওই অংশটুকু সংরক্ষিত রাখতে হবে, তাহলে ওই অংশটুকু (মুক্তিযোদ্ধা কোটা) বাদ দিয়ে বাকি সব উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে। অর্থাৎ আদালত যে মতামত দেন সেটাই প্রাধান্য পাবে বলেও তিনি জানান।

প্রসঙ্গত, কোটা ব্যবস্থা সংস্কারের দাবিতে গত কয়েক মাস ধরে আন্দোলন করেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা। এ নিয়ে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সড়ক অবরোধ, পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ এবং আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের গ্রেফতারের ঘটনাও ঘটে।