২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলা , খালেদা জিয়া -তারেক জড়িত ॥ প্রধানমন্ত্রী

২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলা , খালেদা জিয়া -তারেক জড়িত ॥ প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন রির্পোটার ॥ ২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলায় খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান জড়িত। তাঁরা জড়িত থাকায় আলামত ধ্বংস করা হয়েছিল। আলামত ধ্বংস করতে সিটি করপোরেশনের গাড়ি এসে জায়গা ধুয়ে-মুঁছে সাফ করে দেয়। আমরা ক্ষমতায় এসে এর বিচার কাজ শুরু করি। বিচার চলছে, রায় আশা করি বের হবে।

ভয়াবহ ওই গ্রেনেড হামলার দিনটি স্মরণে আজ মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে আয়োজিত সভায় এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, তৎকালীন বিএনপি-জামায়াত জোটের হামলার হাত থেকে শুধু আওয়ামী লীগ নয়, সেদিন বিদেশিরাও রক্ষা পাননি। ঘটনা ধামাচাপা দিতে ২১ আগস্ট হামলার আলামত রক্ষা করা হয়নি। প্রকৃত খুনিদের গ্রেপ্তার না করে সাজানো হয় জজ মিয়া নাটক।

সরকারের ষড়যন্ত্র ছিল বলেই সন্ত্রাসবিরোধী র্যালির আগের দিন রাত সাড়ে ১১টায় তারা অনুমোদন (সমাবেশের) দিয়েছিল মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা কোনও র্যালি বা মিটিং করলে সেখানকার ভবনগুলোর ছাদে আমাদের স্বেচ্ছাসেবক বাহিনী থাকে। কিন্ত সেদিন ভবনের ছাদ বন্ধ ছিল। আমাদের কাউকেই ছাদে ঢুকতে দেয়নি। কি কারণে দেওয়া হয়নি? আর ঘটনার পর হামলাকারীরার যাতে নির্বিঘ্নে পালিয়ে যেতে পারে সেজন্য পুলিশ আহতদের পাশে না দাঁড়িয়ে টিয়ার শেল ছুড়ে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। আলামত নষ্ট করতে সিটি করপোরেশনের গাড়ি এসে জায়গা ধুয়ে-মুছে সাফ করে দেয়। এতে খুব স্বাভাবিকভাবেই সন্দেহ হয় যে, এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে বিএনপি ওতপ্রোতভাবে জড়িত।'

১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যার পেছনেও জিয়া পরিবারের হাত ছিল বলে অভিযোগ করেন শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, সকল ষড়যন্ত্র ছিন্ন করে জাতির জনকের স্বপ্ন বাস্তবায়নে কাজ করছে আওয়ামী লীগ সরকার।

এর আগে তিনি সেখানে গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে নির্মিত অস্থায়ী বেদীতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় নিহতের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করেন তিনি।

উল্লেখ্য, ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে আওয়ামী লীগের ‘সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও দুর্নীতিবিরোধী’ সমাবেশে বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলায় আওয়ামী লীগের মহিলাবিষয়ক সম্পাদক ও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের সহধর্মিণী আইভি রহমানসহ ২৪ জন নেতাকর্মী শাহাদত বরণ করেন।

দিনটি যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন উপলক্ষে আওয়ামী লীগ নানা কর্মসূচি পালন করছে।