২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বরিশালে যৌতুকের জন্য গৃহবধূকে নির্যাতন

বরিশালে যৌতুকের জন্য গৃহবধূকে নির্যাতন

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ দাবিকৃত যৌতুকের দুই লাখ টাকা পরিশোধ না করায় পাষন্ড স্বামী কর্তৃক স্ত্রীর হাত, পা ও মুখ বেঁধে অমানুষিক নির্যাতন করা হয়েছে। স্বামীর অব্যাহত নির্যাতন সইতে না পেরে প্রাণ বাঁচাতে পালিয়ে এখন বাবার বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছেন গৃহবধূ সুমা আক্তার। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। ঘটনাটি জেলার আগৈলঝাড়া উপজেলার ফুল্লশ্রী গ্রামের।

আজ শুক্রবার দুপুরে ওই গ্রামের মনির খলিফার কন্যা নির্যাতিতা সুমা আক্তার স্থানীয় প্রেসক্লাবে হাজির হয়ে লিখিত অভিযোগে জানান, চার বছর পূর্বে পাশ্ববর্তী চেংগুটিয়া গ্রামের মৃত আব্দুল আজিজ ঘরামীর পুত্র মিরাজুল ইসলামের সাথে সামাজিকভাবে নগদ ৫০ হাজার টাকা যৌতুক ও স্বর্ণালংকারসহ বিভিন্ন উপঢৌকন দিয়ে তার বিয়ে হয়। বিয়ের কয়েকদিন যেতে না যেতেই মিরাজুল ঢাকায় তার ব্যবসা সম্প্রসারণ ও যাতায়াতের জন্য একটি মোটরসাইকেল ক্রয়ের জন্য দুই লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে। এতে সে (সুমা) অপরাগতা প্রকাশ করায় প্রায়ই তাকে অমানুষিক নির্যাতন করা হয়।

অভিযোগে আরও জানা গেছে, গত চারদিন পূর্বে দাবীকৃত যৌতুকের টাকা না দেয়ায় ঘরের দরজা জানালা বন্ধ করে ওড়না দিয়ে হাত, পা ও মুখ বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় তাকে (সুমা) নির্যাতন করে পাষন্ড স্বামী মিরাজুল ইসলাম। এসময় মিরাজুল তার দাবিকৃত দুই লাখ টাকা পরিশোধ করা না হলে তাকে (সুমা) তালাক দিয়ে তার প্রেমিকা খাদিজাকে বিয়ে করবে বলেও হুমকি প্রদর্শন করে। একপর্যায়ে নির্যাতনের হাত থেকে নিজের জীবন বাঁচাতে সুমা ওইদিন রাতেই পালিয়ে বাবার বাড়িতে আশ্রয় নেয়ার পর মুর্মুর্ষ অবস্থায় তাকে উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নির্বাচিত সংবাদ