২২ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আজ লেবাননকে হারিয়ে জয়ের ধারা অক্ষুণ্ণ রাখতে চায় বাংলাদেশ

আজ লেবাননকে হারিয়ে জয়ের ধারা অক্ষুণ্ণ রাখতে চায় বাংলাদেশ

রুমেল খান ॥ ‘জয়’-এর অনুভূতি এমনই এক মানবিক অনুভূতি যা মানুষের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দেয় বহুলাংশে। সাফল্যের জন্য স্পৃহা জাগ্রত হয় আগের চেয়েও আরও বেশি করে। বাংলাদেশ অনুর্ধ-১৬ জাতীয় নারী ফুটবল দল এখন তেমন পর্যায়েই আছে। তাছাড়া নিজ দেশের মাটিতে, নিজেদের দর্শকদের সামনে খেলাটা নিঃসন্দেহে আরও বাড়তি অনুপ্রেরণা জোগাবে বাংলার বাঘিনীদের। আজ বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় ঢাকার কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে আরেকটি জয় কুড়িয়ে নিতে টার্ফে নামবে তারা। তাদের প্রতিপক্ষ মধ্যপ্রাচ্যের দেশ লেবানন। আজ তাদের বড় ব্যবধানে হারাতে পারলে পয়েন্ট টেবিলে দ্বিতীয় অবস্থান থেকে একলাফে শীর্ষে উঠে আসার হাতছানি। এএফসি অনুর্ধ-১৬ নারী চাম্পিয়নশিপের বাছাইপর্বের ‘এফ’ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পথে আরেকধাপ এগোতে আজ লেবানন বধের বিকল্প নেই গোলাম রব্বানী ছোটনের শিষ্যাদের। ‘এফ’ গ্রুপে অংশ নেয়া পাঁচ দলের মধ্যে বাংলাদেশের চেয়ে একটি ব্যাপারে পিছিয়ে আছে বাকি চার দল। তাদের কারোরই বাংলাদেশের মতো দীর্ঘ প্রস্তুতি নেয়ার রেকর্ড নেই। বাংলাদেশের মেয়েরা গত কয়েক বছর ধরেই আবাসিক ক্যাম্পে থেকে এক সঙ্গে কঠোর অনুশীলন করছে। তাছাড়া এই দলের সুবিধা হচ্ছে দলের ২৩ জনেরই আছে আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা।

বাংলাদেশে আসার আগে ওয়েস্ট এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে খেলে রানার্সআপ হয়েছিল লেবানন। সিরিয়ার কাছে হেরেছিল টাইব্রেকারে। এবারই প্রথম এএফসি চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নিচ্ছে তারা। দুই মাসের প্রস্তুতির সঙ্গে স্থানীয় দলগুলোর সঙ্গে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছিল। একটি জিতেছে এবং দুটিতে হেরেছে। অধিনায়ক রিদা ওয়াহাব এই আসর থেকে অভিজ্ঞতা অর্জনের কথা বলেছে। কোচ হ্যাগপ ডেমির জিয়াম বলেন, ‘এখান থেকে ভাল খেলে কোয়ালিফাই করতে পারলে খুশি হব।’

প্রস্তুতিতে পিছিয়ে থাকলে শারীরিক গড়নে (লম্বায় এবং ওজনে) বাংলাদেশের মেয়েদের চেয়ে অনেক এগিয়ে আছে লেবাননের মেয়েরা। তবে লেবাননের চেয়ে স্কিল, স্পিড আর স্ট্যামিনায় এগিয়ে লাল-সবুজরা। এটাই ভরসা জোগাচ্ছে তাদের।

২ ম্যাচের প্রতিটিতেই জিতে লেবানন আছে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে। তাদের পয়েন্ট ৬। ১ ম্যাচে ৩ পয়েন্ট বাংলাদেশ এবং ভিয়েতনামের। তবে গোল গড়ে এগিয়ে থাকায় বাংলাদেশই আছে দুইয়ে, আর ভিয়েতনাম তিনে। লেবানন তাদের প্রথম ম্যাচে ৮-০ গোলে হারিয়ে দেয় বাহরাইনকে। দ্বিতীয় ম্যাচে সংযুক্ত আরব আমিরাতকে হারায় ৬-৩ গোলে। আর বাংলাদেশ নিজেদের প্রথম ম্যাচে বাহরাইনকে ১০-০ গোলে হারিয়ে শুভসূচনা করে।

বাহরাইনের চেয়ে তুলনামূলক শক্তিশালী প্রতিপক্ষ লেবানন। তাদের নিয়ে বাংলাদেশ দলের কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন বিশেষ পরিকল্পনা করেছেন। সেটা হলোÑ তাদের সেরা খেলোয়াড় জাহরা আসাফকে জোনাল মার্কিংয়ের মাধ্যমে নিষ্ক্রিয় করে রাখা। লেবনানকে হারাতে কতটা আত্মবিশ্বাসী ছোটন? ‘ওদের হারানোর ব্যাপারে আমি অবশ্যই আত্মবিশ্বাসী। সবচেয়ে বড় কথাÑ ম্যাচটি আমাদের জিততেই হবে। আমরা জয়ের জন্যই খেলব।’

ছোটন আরও জানান, তার একাদশে দুই-একটি পরিবর্তন আসতে পারে। বিশেষ করে ফরোয়ার্ড লাইনে। এদিকে লেবানন কোচ হ্যাগপ দেমির জিয়ান বলেন, ‘বাংলাদেশ কঠিন প্রতিপক্ষ। আমরা বাহরাইনের বিপক্ষে তাদের খেলা দেখেছি। তারা খুবই শক্তিশালী দল। সব পজিশনেই তারা সেরা। জিততে হলে আগের দুই ম্যাচের চেয়ে বেশি পরিশ্রম করতে হবে আমাদের।’

উল্লেখ্য, যে কোন পর্যায়ের খেলায় এই প্রথম লেবাননের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। আজকের ম্যাচে বাংলার বাঘিনীরা কি ম্যাচ জিতে জয়ের হাসি হাসতে পারবে?