১৬ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জিতে সুপার ফোর নিশ্চিত ভারতের

  • হংকংয়ের বিদায়

রুমেল খান ॥ বড্ড সঙ্কটময় পরিস্থিতিতে পড়ে গিয়েছিল ভারত। একসময় মনে হয়েছিল এই বুঝি ম্যাচটা হেরেই যাচ্ছে তারা। কিন্তু না, ম্যাচ টেম্পারমেন্ট, ধৈর্য্য আর অভিজ্ঞতার জোরেই শেষ পর্যন্ত ম্যাচটা বের করে নিয়ে বিজয়ের হাসি হাসল তারা। সেই সঙ্গে ‘এ’ গ্রæপে তারা পাকিস্তানের পর পৌঁছে গেল এশিয়া কাপ ক্রিকেটের ‘সুপার ফোর’ পর্বে। মঙ্গলবার সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত দিবা-রাত্রির খেলায় তারা ২৬ রানে হারায় হংকংকে।

টসে জিতে হংকং আগে ফিল্ডিং বেছে নেয়। ভারত ব্যাটিং করতে নেমে হংকংয়ের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেটে ২৮৫ রান সংগ্রহ করে। জবাবে হংকং ব্যাট করতে নেমে ৫০ ওভারে ৮ উইকেটে ২৫৯ রানের বেশি তুলতে পারেনি।

অথচ শুরুটা দুর্দান্ত করে হংকং। ৩৪.১ ওভারেই তুলে ফেলে ১৭৪ রান। এরপরই দুই ওপেনার নিযাকাত খান (৯২) এবং অধিনায়ক অংশুমান রাথ (৭৩) আউট হয়ে গেলে হংকংয়ের ব্যাটিংয়ে ধস নামে। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট পড়তে থাকে। ভারতের খলিল আহমেদ এবং যুবেন্দ্র চাহাল ৩টি করে উইকেট শিকার করেন। কুলদীপ যাদব পান ২টি উইকেট।

এর আগে ব্যাটিং করে ভারতের শিখর ধাওয়ান দুর্দান্ত সেঞ্চুরি (১২৭) হাঁকান। তার ওই সেঞ্চুরিতে ভর করে একটা সময় ২ উইকেটেই ২৪০ রান করে ফেলেছিল ভারত। সেখান থেকে শেষ ৫৬ বলে তারা তুলতে পেরেছে মাত্র ৪৫ রান, হাতে ৮টি উইকেট থাকার পরও!

ওপেনার রোহিত শর্মা ২৩ রানে সাজঘরে ফিরলেও আম্বাতি রাইডু তিন নম্বরে রনমে ৬০ রানের ইনিংস খেলেছেন। তবে ১২০ বলে ১৫ বাউন্ডারি আর ২ ছক্কায় ১২৭ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে ধাওয়ান ফেরার পরই যেন মড়ক লেগে যায় ভারতের ইনিংসে।

হংকংয়ের কিনচিত শাহ নেন ৩ উইকেট। ২টি উইকেট শিকার এহসান খানের। আর একটি করে উইকেট পেয়েছেন এহসান নেওয়াজ আর আইজাজ খান।