১৬ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মেসির হ্যাটট্রিকে বার্সার দারুন জয়

মেসির হ্যাটট্রিকে বার্সার দারুন জয়

অনলাইন ডেস্ক ॥ অসাধারণ এক হ্যাটট্রিকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শুরুটা দুর্দান্ত করলেন লিওনেল মেসি। মাঝে জালের দেখা পেলেন উসমান দেম্বেলে। তাতে পিএসভি আইন্দহোভেনকে উড়িয়ে প্রতিযোগিতায় শুভ সূচনা করল বার্সেলোনা।

কাম্প নউয়ে মঙ্গলবার স্থানীয় সময় বিকালে ইউরোপ সেরা প্রতিযোগিতার গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ডাচ চ্যাম্পিয়নদের ৪-০ গোলে হারায় এরনেস্তো ভালভেরদের দল।

ম্যাচের শুরু থেকে একের পর এক আক্রমণ করতে থাকা বার্সেলোনা ২১তম মিনিটে প্রথম ভালো সুযোগ পায়। মেসির দারুণ পাস পেয়ে দুরূহ কোণ থেকে পাশের জালে মারেন লুইস সুয়ারেস।

মেসির অসাধারণ নৈপুণ্যে ৩১তম মিনিটে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। প্রায় ২২গজ দূর থেকে বাঁকানো ফ্রি-কিকে পোস্ট ঘেঁষে জাল খুঁজে নেন অধিনায়ক।

দ্বিতীয়ার্ধের নবম মিনিটে ডান দিক থেকে ডি-বক্সে ঢোকা সুয়ারেসের কাটব্যাক ফাঁকায় পেয়ে উড়িয়ে মারেন ফিলিপে কৌতিনিয়ো। তিন মিনিট পর ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডারের বাঁকানো শট কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান পিএসভি গোলরক্ষক।

৬৭তম মিনিটে ডি-বক্সের ঠিক বাইরে থেকে সুয়ারেসের উঁচু শট গোলরক্ষককে পরাস্ত করলেও ক্রসবারে বাধা পায়।

দেম্বেলের একক নৈপুণ্যে দ্বিতীয় গোলের দেখা পায় বার্সেলোনা। ৭৪তম মিনিটে কৌতিনিয়োর পাস পেয়ে দুই মিডফিল্ডারের মধ্যে দিয়ে বল নিয়ে বের হয়ে একটু এগিয়ে আরেক জনকে কাটিয়ে বুলেট গতির শটে লক্ষ্যভেদ করেন ফরাসি ফরোয়ার্ড।

আর ৭৭তম মিনিটে ইভান রাকিতিচের উঁচু করে বাড়ানো বল ডি-বক্সে পেয়ে প্রথম ছোঁয়ায় ব্যবধান আরও বাড়িয়ে জয় প্রায় নিশ্চিত করে ফেলেন মেসি।

চার মিনিট পর ১০ জনের দলে পরিণত হয় বার্সেলোনা। লোসানোকে ফাউল করায় দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠছাড়া হন ফরাসি ডিফেন্ডার সামুয়েল উমতিতি। তবে তাতে পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নদের আক্রমণের ধার একটু কমেনি। তারই ধারাবাহিকতায় ৮৭তম মিনিটে হ্যাটট্রিক পূরণ করেন মেসি। সুয়ারেসের বাড়ানো বল ধরে ডি-বক্সে ঢুকে কোনাকুনি শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলার।

ইউরোপ সেরা প্রতিযোগিতায় আর্জেন্টাইন তারকার এটি ১০৩তম গোল।

‘বি’ গ্রুপের অন্য ম্যাচে টটেনহ্যাম হটস্পারের বিপক্ষে ঘরের মাঠে পিছিয়ে পড়ার পর ঘুরে দাঁড়িয়ে দারুণ এক জয় তুলে নিয়েছে ইন্টার মিলান।

সান সিরোয় ৫৩তম মিনিটে ডেনমার্কের মিডফিল্ডার ক্রিস্তিয়ান এরিকসেনের গোলে এগিয়ে যায় টটেনহ্যাম।

৮৫তম মিনিটে আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড মাউরো ইকার্দির গোলে সমতায় ফেরার পর যোগ করা সময়ে জয়সূচক গোলটি করেন উরুগুয়ের মিডফিল্ডার মার্তিয়াস ভেসিনো।