২১ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আজ সেই সাগর ট্রাজেডির এক যুগ

আজ সেই সাগর ট্রাজেডির এক যুগ

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলাপাড়া ॥ আজ সেই ভয়াল ১৯ সেপ্টেম্বর। সাগর ট্রাজেডির এক যুগ। পটুয়াখালীর সাগরপারের জনপদ কলাপাড়াসহ গোটা উপকূলবাসীর কাছে বেদনাদায়ক স্মরণীয় দিন । বিশেষ করে জেলে পেশার মানুষের কাছে এই দিনটি সবচেয়ে শোকাবহ হিসেবে পরিচিত। ২০০৬ সালের এই দিনে সাগরের ভয়াল ঢেউয়ের তান্ডবে প্রাণ হারায় শতাধিক জেলে। লন্ডভন্ড করে ডুবিয়ে দেয় শতাধিক জেলের ট্রলার। এখনও নিখোঁজের তালিকায় রয়েছে অনেক জেলের নাম। সজনহারা এসব পরিবারে এই দিনটিতে চলে শোকাবহ অবস্থা। কলাপাড়ায় জেলে গ্রামগুলোয় সজন হারানো পরিবারের কান্না আজও থামেনি। ভয়াল ওই ঝড়ে ট্রলার ডুবিতে পিতা হয়েছে সন্তানহারা। স্ত্রী স্বামীহারা, আর সন্তান হারিয়েছে তাদের উপার্জনোক্ষম বাবাকে। এদের একেকটি দিন কাটে এখনও অর্ধাহার আর অনাহারে। অনেকের স্কুলগামী সন্তানের লেখাপড়া বন্ধ হয়ে গেছে। উপার্জনোক্ষম মানুষটি হারিয়ে গোটা পরিবার অসহায় হয়ে গেছে । এদের খবর রাখে না কেউ। এসব পরিবারের স্ত্রী-সন্তানরা ২০০৬ সালে খাদ্য ও আবাসন সমস্যার সমাধানের দাবিতে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণে কলাপাড়া- কুয়াকাটা সড়কের মানব বন্ধন, সড়ক অবরোধসহ স্মারকলিপি প্রদানের মতো বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছে। এদের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে এখানকার জেলে, মৎস্যজীবিসহ হাজার হাজার সাধারণ মানুষ। কিন্তু কেউ কর্ণপাত করেনি। পর পর দুুটি বছর ঈদের সময় উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে প্রত্যেক পরিবারকে শাড়ি লুঙ্গি বিতরণ করে। কিন্তু এখন আর এসবও জোটেনা।

ভয়াল এই ট্রাজেডির স্মরণে জেলে পল্লীতে সজনেরা করছেন বিশেষ দোয়া মোনাজাত। ওই সময় তৎকালীন চারদলীয় সরকারের চরম উদাসীনতা আর দায়ীত্বহীনতার কারণে হতভাগা জেলেদের যেসব লাশ ভেসে আসে তার অনেকের শেয়াল কুকুরে খেয়ে ফেলে। শুধুমাত্র সৎকারের অভাবে এমনটি হয়েছিল। ওই সময়ে দৈনিক জনকন্ঠে সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশ হলে দেশব্যাপী তোলপাড় হয়। এমনকি তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেতা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিষয়টি সংসদে উত্থাপন করলে সে সময়কার সরকার প্রধান তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া জরুরি সফরে কলাপাড়ায় এসে জেলেদের ক্ষতিপুরনসহ সকল সহায়তার আশ্বাস দিয়েছিলেন। কিন্তু আজ পর্যন্ত দুই সরকারের কেউ এসব পরিবারের সহায়তায় কিছুই করেনি। কাটছে চরম অভাব আর অনটনের মধ্যে এদের এককটি দিন। আজ সেই ভয়াল ১৯ সেপ্টেম্বরের এক যুগ আজ। শুধু দু’ চোখের অশ্রু ঝরানোর মধ্য দিয়ে দুঃসহ স্মৃতির মতো খুঁজে বেড়ায় এরা তাদের হারানো সজনদের।