১৯ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কেরানীগঞ্জে পিতাপুত্র হত্যা পুনর্বিচারেও পাঁচ আসামির ডবল মৃত্যুদণ্ড বহাল

কোর্ট রিপোর্টার ॥ ঢাকার কেরানীগঞ্জে প্রায় ২৫ বছর আগে পিতা-পুত্র হত্যার ঘটনার মামলায় পুনর্বিচারেও ৫ আসামির ডবল মৃত্যুদণ্ডের রায় বহাল রেখেছে আদালত। বুধবার ঢাকার সপ্তম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ বজলুর রহমান এ রায় ঘোষণা করেন। তবে পুনর্বিচারের রায়ে শাহজাহান নামে আরেক জনকে গুরুতর আহত করার অভিযোগে আসামিদের আরও ৫ বছর করে কারাদণ্ড এবং ১০ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড দিয়েছে আদালত।

দণ্ডিতরা হলেন মোঃ নজরুল ইসলাম নজু, মিস্টার ওরফে ছোট মিস্টার, শফিকুল ইসলাম, মোঃ আরিফ ও মোঃ মাসুদ। প্রথম ৩ জন রায় ঘোষণার সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন। ২ জন পলাতক।

১৯৯৩ সালে ১৩ জুলাই কেরানীগঞ্জে পিতা শরীফ হোসেন ও তার সাত বছরের ছেলে খোকনকে কুপিয়ে হত্যা এবং ১২ বছর বয়সী অপর ছেলে শাহজাহানকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করার অভিযোগে কেরানীগঞ্জ থানায় এই মামলা দায়ের হয়। নিহত শরীফ হোসেনের ছেলে আব্দুর রহিম এ মামলা দায়ের করেন।

অভিযোগে বলা হয়, শরীফ হোসেন কেরানীগঞ্জের গুদারাঘাট এলাকায় একটি মুদি দোকান পরিচালনা করতেন। আসামিরা বাকিতে সিগারেট না পেয়ে শরীফ হোসেনকে কোপাতে থাকে। পিতাকে বাঁচানোর জন্য শিশু শাহজাহান ও খোকন এগিয়ে আসলে আসামিরা তাদেরও কোপায়। ঘটনাস্থলেই পিতা শরীফ ও পুত্র খোকন নিহত হয় এবং শাহজাহান গুরুত্বর আহত হয়।

মামলাটি তদন্তের পর ১৯৯৪ সালের ২৬ আগস্ট কেরানীগঞ্জ থানার তৎকালীন ওসি মাহমুদুল কবির চৌধুরী আদালতে চার্জশীট দাখিল করেন। তদন্তকালে আসামি মোঃ আরিফ ও মোঃ মাসুদ হত্যার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দী দেয়।

নির্বাচিত সংবাদ