১৫ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

গাজার একমাত্র বিমানবন্দরটি এখন ধ্বংসস্তূপ

গাজার একমাত্র বিমানবন্দরটি এখন ধ্বংসস্তূপ

অনলাইন ডেস্ক ॥ এক সময় ইসরাইল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে শান্তির প্রতীক ছিল যে বিমানবন্দরটি, গাজার একমাত্র সেই বিমানবন্দরটি এখন ধ্বংসস্তূপ।

গাজার ইয়াসির আরাফত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরটি ২০০১ সালে ইসরাইলের বোমাবর্ষণে পুরোপুরি ধ্বংস হয়ে যায়। এর পর থেকে এই বিমানবন্দরে আর কোনো বিমান উঠানামা করেনি।

আনন্দবাজারের খবরে বলা হয়েছে, ১৯৯৫ সালে ইসরাইল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে সম্পাদিত অসলো শান্তি চুক্তির পর বিমানবন্দরটি তৈরি করা হয়েছিল। ১৯৯৮ সালে ২৪ নবেম্বর সেটা চালু হয়।

কিন্তু পরে এই শান্তি চুক্তি ভেঙে যায়। আর বিমানবন্দরের ওপর হামলা চালায় ইসরাইলি সেনারা।

তারপর থেকেই ওই বিমানবন্দরটি পরিত্যক্ত। রানওয়ের অবস্থাও শোচনীয়। ফলে বর্তমানে গাজায় কোনো বিমানবন্দরই নেই।

জাপান, মিসর, সৌদি আরব, স্পেন আর জার্মানির যৌথ অনুদানে ওই বিমানবন্দর তৈরি হয়েছিল।

এর নকশা করেছিলেন মরক্কোর ইঞ্জিনিয়াররা। খরচ হয়েছিল আট কোটি ৬০ লাখ ডলার।

প্রতি বছর সাত লাখ যাত্রী নিয়ে বিমানবন্দরে উঠানামা করতো বিমান। প্রায় আড়াই বর্গ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে গড়ে উঠেছিল বিমানবন্দরটি।