১৬ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ভারতীয় জলসীমায় উদ্ধার ১৫ জেলে

ভারতীয় জলসীমায় উদ্ধার ১৫ জেলে

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলাপাড়া ॥ কুয়াকাটা সংলগ্ন বঙ্গোপসাগরে ভয়াল উত্তাল ঢেউয়ের তোড়ে ১৬ জেলেসহ ভারতীয় সীমানায় ডুবে গেছে মহিপুর মৎস্য বন্দরের তোতা মিয়ার এফবি ইসরাত জাহান ফিশিং ট্রলার। ভারতীয় জেলেরা ১৫ জেলেকে উদ্ধারের খবর নিশ্চিত করেছে মাঝি রহমত উল্লাহ। তবে শহীদ আলম নামের এক জেলে নিখোঁজ রয়েছে। ট্রলারটি ডুবির পরে জেলেরা অন্য ট্রলারে উদ্ধার করে ভারতীয় এলাকায় অবস্থান করছে।

এছাড়া ধুলাসারের নতুনপাড়া গ্রামের এফবি সাজেদা ট্রলারটির তলা ঢেউয়ের ঝাপটায় ফেটে ডুবে গেছে। মাঝি ফরিদউদ্দিন জানান, প্রচন্ড ঢেউয়ের তোড়ে বডি ফেটে ট্রলারটি ডুবে গেলে। তারা সাগরবক্ষে ভাসতে ছিল। অপর একটি ট্রলার তাদের ১৮ জনকে উদ্ধার করে নিয়ে আসে। মালিক বশার মোল্লা জানান, তাঁর অন্তত ৩০ লাখ টাকার ক্ষতির শঙ্কা রয়েছে। অপরদিকে ১৭ জেলেসহ হাবিব খলিফার একটি ট্রলার নিখোঁজ রয়েছে।

মাঝি আব্দুর রহিমের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও নিশ্চিত হতে পারেননি যে আদৌ এসব জেলেরা ট্রলারসহ কোথাও রয়েছেন। কিংবা বেঁচে আছেন। সাগর থেকে ফিরে আসা ট্রলার মাঝি ফোরকান জানান, সাগর এতো বেশি উত্তাল তারা এ বছর আর দেখেননি। বৃহস্পতিবার রাতে এসব ট্রলার কিনারে ফিরতে গিয়ে কেউ দিগহারা হয়ে বিপথে গিয়ে এমন দুর্ঘটনায় পড়েছে। মহিপুর আলীপুর সংলগ্ন শিববাড়িয়া চ্যানেলে এখন হাজারো ফিশিং বোট নিরাপদ আশ্রয়ে রয়েছে। তবে ১৮ জেলেসহ একটি ট্রলার নিখোঁজ থাকা এবং একটি ট্রলার ডুবির ঘটনায় কলাপাড়ার জেলেদের মধ্যে বিরাজ করছে উৎকন্ঠা। ট্রলার মালিকরা শুধু মাঝির নাম বলতে পারলেও নিখোঁজ জেলেদের নাম জানাতে পারেননি।

মহিপুর ফিশিং বোট ও আড়ত মালিক সমিতির সভাপতি গাজী ফজলুর রহমান জানান, ভারতীয় জেলেরা উদ্ধার করেছে ১৫ জেলেকে এটি তাঁরা নিশ্চিত হয়েছেন। তিনি ফিরে আসা জেলে এবং বোটের মাঝিদের উদ্ধৃতি দিয়ে জানান, জেলেরা কখনও এমন ভয়াল উত্তাল সাগর আগে দেখেননি।