২০ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঢাকা উত্তর সিটির প্যানেল মেয়র ওসমান গণির মৃত্যু

ঢাকা উত্তর সিটির প্যানেল মেয়র ওসমান গণির মৃত্যু

অনলাইন রিপোর্টার ॥ ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র ওসমান গণি মারা গেছেন।

সিঙ্গাপুরের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বাংলাদেশ সময় শনিবার সকাল ৮টায় তার মৃত্যু হয় বলে জানিয়েছেন আবদুল গনির সহকারী একান্ত সচিব নুরুল হক আকাশ।

তিনি বলেন, ওসমান গণি গত জুলাইয়ের মাঝামাঝি হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। বারডেমে চেক আপ করালে তার ফুসফুসে ক্যান্সার ধরা পড়ে। গত ১৪ আগস্ট সরকারের কাছ থেকে ছুটি নিয়ে সিঙ্গাপুর যান। সেখানে সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন।

“গত মঙ্গলবার রাতে শ্বাসকষ্ট শুরু হলে আবার হাসপাতালে আসেন। ওইখানে আসার পর তাকে আইসিউতে নেওয়া হয়। গত পরশু রাতে অবস্থা খুব খারাপ হয়। আবার গতকাল ভোরে অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়। কিন্তু আজ বাংলাদেশ সময় সকাল ৮টার দিকে তিনি মারা যান।”

ওসমান গণির সঙ্গে সিঙ্গাপুরে অবস্থানরত তার ছেলে তাপসের বরাত দিয়ে তিনি বলেন, তার মরদেহ দেশে আনার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

“আমরা সিঙ্গাপুরে বাংলাদেশ হাই কমিশনের সঙ্গে যোগাযোগ করছি যাতে যত দ্রুত সম্ভব মরদেহ নিয়ে আসা যায়। সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের আজকের যে ফ্লাইটটা আছে সেটাতে আজই নিয়ে আসার চেষ্টা করছি।”

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হক অসুস্থ হয়ে চিকিৎসার জন্য লন্ডন গেলে গত বছরের ৪ সেপ্টেম্বর ওসমান গণিকে প্যানেল মেয়র নিয়োগ দেয়। আনিসুলের মৃত্যুর পরও প্যানেল মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন ওসমান গণি।

ডিএনসিসির ২১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ওসমান গণি বাড্ডা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন।

৬৯ বছর বয়সী ওসমান গণি স্ত্রী ও চার ছেলে রেখে গেছেন।