২৩ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আদিবাসীদের জন্য ৫% কোটা বহাল রাখার দাবি গারো ছাত্র সংগঠনের

স্টাফ রিপোর্টার ॥ প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণীসহ সরকারী সকল নিয়োগে আদিবাসীদের পাঁচ শতাংশ কোটা বহাল রাখার দাবি জানিয়েছেন বাংলাদেশ গারো ছাত্র সংগঠনের (বাগাছাস) নেতৃবৃন্দ। তারা বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব সময়ই আদিবাসীদের প্রতি আন্তরিক ও যতœœশীল। তাঁর দক্ষ নেতৃত্ব ও নজরদারির কারণে চাকরি ও শিক্ষা ক্ষেত্রে কোটা সুবিধা পেয়ে আসছে আদিবাসীরা। কিন্তু সম্প্রতি মন্ত্রিপরিষদ সচিবের প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণীর সরকারী নিয়োগে আদিবাসী কোটা বাতিলের সুপারিশ ও বক্তব্যে অনগ্রসর আদিবাসীরা হতবাক হয়েছে। এই সুপারিশ বাস্তবায়িত হলে পিছিয়ে পড়া আদিবাসীরা আবার উন্নয়নের স্র্রোতের বাইরে ছিটকে পড়বে।

শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মন্ত্রিপরিষদ সচিবের প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণীর সরকারী নিয়োগে আদিবাসী কোটা বাতিলের সুপারিশের প্রতিবাদে আয়োজিত মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশে আদিবাসী ছাত্র নেতারা এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ গারো ছাত্র সংগঠন (বাগাছাস) ঢাকা মহানগর শাখার সভাপতি প্যাট্রিক চিসিম এর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক জেউন্স রিচার্স ঘাগ্রা’র সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাগাছাস কেন্দ্রীয় সংসদের সাধারণ সম্পাদক মি. অনুপ হাদিমা ও সাংগঠনিক সম্পাদক মি. ডেভিড চিরান। সমাবেশে সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন ত্রিপুরা স্টুডেন্টস ফোরাম এর সভাপতি অসীম ত্রিপুরা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গারো পরিবারের পক্ষে অনিয়া রিছিল, প্রত্যাশিতা রেমা। সমাবেশে বক্তারা আদিবাসীদের কোটা বাতিলের সিদ্ধান্তের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে সরকারী সব চাকরিতে আদিবাসীদের ৫% কোটা বহালের জোর দাবি করেন। তারা বলেন, কোন তথ্য বা প্রতিবেদনের ভিত্তিতে আদিবাসীরা এগিয়ে গেছে বলে কোটা বাতিলের বক্তব্য দিলেন তার কোন বাস্তব ভিত্তি নেই। ভারত, মালয়েশিয়া, পাকিস্তান, কানাডা, চীনসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পিছিয়ে পড়া ও অনগ্রসর জনগোষ্ঠীর জন্য কোটা ব্যবস্থা চালু রয়েছে।