২১ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আজ আরও একটি পাক-ভারত লড়াই

  • সুপারফোরে মুখোমুখি চিরপ্রতিদ্বন্দী

শাকিল আহমেদ মিরাজ ॥ মাঠে ইদানীং পাক-ভারত লড়াই সেভাবে জমছে না। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির একতরফা ফাইনালে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের উড়িয়ে দিয়ে শিরোপা জিতেছিল সরফরাজ আহমেদের পাকিস্তান। সেই তারাই এশিয়া কাপের গ্রুপপর্বে পাত্তা পায়নি। আজ আরও একটি লড়াই ঘিরে তাই প্রশ্নটা উঠছেই, ম্যাচটা কি সত্যি জমবে? জমা উচিত! কারণ সুপারফোরে নিজ নিজ প্রথম ম্যাচে জয় নিয়ে আত্মবিশ্বাসী দু’দল। একদিকে রোহিত শর্মার ভারত উড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশকে। অন্যদিকে কিছুটা চাপে পড়লেও শেষ পর্যন্ত আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে পাকিস্তান। আজ যারা জিতবে তারাই ফাইনালের দৌড়ে অনেকদূর এগিয়ে যাবে। সুতরাং নিকট অতীতের প্রতিদ্বন্দ্বিতা কিংবা পরিসংখ্যান সব পেছনে ফেলে দু’দলই এমন একটি ম্যাচে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে চাইবে। দুবাইয়ে খেলা শুরু বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে ৫টায়।

বিশ্ব ক্রিকেটের সবচেয়ে আর্কষণীয় লড়াই। অথচ সচরাচর এই দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের লড়াই দেখতে পারে না বিশ্বের ক্রিকেটপ্রেমীরা। তবে চলমান এশিয়া কাপের ১৪তম আসরের সুবাদে দ্বিতীয়বারের মতো ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ দেখতে যাচ্ছে তারা। গ্রুপপর্বের পর আজ সুপারফোরে আবারও মুখোমুখি হচ্ছে উপমহাদেশের চিরবৈরী দুই পরাশক্তি। ফাইনালের পথ মসৃণ করতেই মাঠে নামছে দু’দল। রাজনৈতিক বিরোধের কারণে দীর্ঘদিন যাবত দ্বিপক্ষীয় সিরিজে অংশ নেয় না ভারত ও পাকিস্তান। সর্বশেষ ২০১২ সালে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে মুখোমুখি হয়েছিল দু’দল। ভারতের মাটিতে অনুষ্ঠিত ঐ সিরিজটি ২-১ ব্যবধানে জিতেছিল পাকিস্তান। দ্বিপক্ষীয় সিরিজ বাদে দীর্ঘদিন পর পর আইসিসির টুর্নামেন্ট ও এশিয়া কাপের কল্যাণে মুখোমুখি হয় ভারত ও পাকিস্তান। ২০১২ সালের পর আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে দু’বার, এশিয়া কাপ, বিশ্বকাপের এবারের এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে মুখোমুখি হয়েছে ভারত ও পাকিস্তান।

এবারের এশিয়া কাপে একই গ্রুপে থাকায় ইতোমধ্যে লড়াইয়ে শামিল হয় ভারত ও পাকিস্তান। সেখানে ভারতের দাপটের সামনে দাঁড়াতেই পারেনি আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জয় করা পাকিস্তান। ৮ উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয় ভারত। ‘এ’ গ্রুপের খেলায় টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় পাকিস্তান। ভারতীয় বোলারদের তোপের মুখে মাত্র ১৬২ রানে অলআউট হয় পাকিস্তান। জবাবে ২৯ ওভারের মধ্যে ম্যাচ জিতে নেয় ভারত। নিজেদের সঙ্গে লড়াইয়ের আগে গ্রুপপর্বে হংকংয়ের বিপক্ষে জয়ের স্বাদ নেয় ভারত ও পাকিস্তান। গ্রুপপর্বে দু’টি ম্যাচে ভারত ও একটিতে পাকিস্তান জিতে সুপারফোরে ওঠে। সুপারফোরে নিজ নিজ ম্যাচে জয় পেয়েছে ভারত ও পাকিস্তান দু’দলই। বাংলাদেশকে ৭ উইকেটে হারায় ভারত। আর শুক্রবার আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৩ উইকেটের কষ্টার্জিত জয় পায় পাকিস্তান। সুপারফোরে শুভসূচনা করায় বেশ ফুরফুরে মেজাজেই রয়েছে ভারত ও পাকিস্তান।

এমন অবস্থায় আবারও মুখোমুখি হবে তারা। এ ম্যাচের বিজয়ী দল ফাইনালের পথে অনেকাংশে এগিয়ে যাবে। তাই পাকিস্তানের বিপক্ষে এবারও দল ভাল পারফরর্মেন্স করতে চায় বলে জানিয়েছেন ভারতের মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান আম্বাতি রাইডু। তিনি বলেন, ‘গ্রুপপর্বে পাকিস্তানকে আমরা হারিয়েছি। এছাড়া এখন পর্যন্ত এবারের আসরে আমরা সেরা পারফর্মেন্স করে চলেছি। এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে চাই এবং পাকিস্তানের বিপক্ষে আবারও জিততে চাই।’ গ্রুপপর্বে হারলেও সুপারফোরে ভারতের বিপক্ষে ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন পাকিস্তান ওপেনার ইমাম-উল-হক। তিনি বলেন, ‘গ্রুপপর্বে ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় আমরা ম্যাচ হেরেছি। প্রথম ১০ ওভারের মধ্যে দু’ওপেনার প্যাভিলিয়নে ফিরলে সেখান থেকে ঘুরে দাঁড়ানো সত্যিই কঠিন। যা আমরা ঐ ম্যাচে করতে পারেনি। তবে সুপারফোরে সবকিছু নতুনভাবে শুরু করতে যাচ্ছি আমরা। তাই ঐ ম্যাচে দল ঘুরে দাঁড়াবে বলে আমার বিশ্বাস।’

ওয়ানডে ক্রিকেটে এ পর্যন্ত ১৩০ দেখায় ভারতের জয় ৫৩ ও পাকিস্তানের ৭৩টিতে। ৪টি ম্যাচ হয় পরিত্যক্ত। আর এশিয়া কাপে ১১ ম্যাচে এতদিন সমান পাঁচটি করে জয়ই ছিল দু’দলের। কিন্তু গ্রপপর্বের জয়ে এগিয়ে গেছে রোহিত শর্মারা। আজ কি তবে পাকিস্তানের দিন? বৈরী রাজনৈতিক সম্পর্কের কারণে দু’দলের মধ্যকার দ্বিপক্ষীয় সিরিজ অনেকদিন বন্ধ থাকায় অপেক্ষার এ লড়াই এখন কেবল আইসিসির টুর্নামেন্টগুলোতেই দেখা যায়। তাই আকর্ষণও অনেক। পরিসংখ্যান, সাম্পতিক ফর্ম যাই হোক, ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ ঘিরে সবসমই থাকে বাড়তি উন্মাদনা। সুপারফোরে সমর্থকরা তাই একটি আগুন ম্যাচ দেখার আশা করতেই পারেন।